টিসিবির পণ্যবাহী ট্রাকের অপেক্ষায় ক্লান্ত হয়ে ঘুম!

রোববার (২৮ নভেম্বর), মধ্য দুপুর। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এসএম (সলিমুল্লাহ মুসলিম) হল সংলগ্ন পলাশী বাজারের চার রাস্তার মোড়ে ফুটপাতে ছোট্ট শিশু থেকে শুরু করে ৬০-৭০ বছরের বেশি বয়সী শতাধিক নারী-পুরুষকে বসে থাকতে দেখা যায়। তাদের সবার দৃষ্টি চারপাশের রাস্তায় চলমান যানবাহনের দিকে। প্রায় সবার হাতে একটি করে শপিংব্যাগ। দু-তিনজন অধিক বয়স্ক নারীকে বসে বসে ঘুমাতে দেখা যায়।

কৌতূহলবশত তাদের বসে থাকার কারণ জানতে চাওয়া মাত্র সবার অভিন্ন প্রশ্ন ‘সকাল থাইক্যা বইসা আছি, গাড়ি কহন আইবো।’ গণমাধ্যমকর্মী পরিচয় শুনে হতাশ হলেও মুহূর্তেই সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) ট্রাক সময় মতো না আসা, ভিড় দেখলেই পণ্য নেই বলে চলে যাওয়া, চাল না নিলে অন্য পণ্য না দেওয়া ইত্যাদি নিয়ে নানা ক্ষোভ প্রকাশ করে বিভিন্ন স্পটে সময় মতো পণ্যবাহী ট্রাক পৌঁছানোর জোর দাবি জানান তারা।

টিসিবির পণ্যবাহী ট্রাকের অপেক্ষায় ক্লান্ত হয়ে ঘুম!

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের খোলামোড়া এলাকার বাসিন্দা মধ্যবয়সী রহিমা বেগম ও সেতারা বেগম। সকাল সাড়ে ৯টায় হেঁটে রওয়ানা হয়ে ১০টা থেকে পণ্যবাহী ট্রাকের অপেক্ষা বসে আছেন। কিন্তু গাড়ির দেখা নেই।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে রহিমা বেগম বলেন, গরিব মানুষ, আয় রোজগার কম তাই দামি চাল খেতে পারেন না। তাই অপেক্ষাকৃত কম দামে চাল, তেল ও চিনি কিনতে ছুটে আসেন। কিন্তু অধিকাংশ সময়ই ভিড়ে লাইনের পেছনে পড়ে পণ্য না পেয়ে ফিরে যান। তাই আজ সকাল সাড়ে ৯টার মধ্যে কয়েক কিলোমিটার হেঁটে এখানে এসে ট্রাকের অপেক্ষা করছেন। আজও পাবেন কি না জানেন না। তিনি এ প্রতিবেদকের মাধ্যমে টিসিবির কোন ট্রাক কোন দিন কোন স্পটে থাকবে তা জানালে ভালো হয় বলে মন্তব্য করেন।

৬০ বছর বয়সী আবুল হোসেন বেপারী বলেন, তিনি সকাল থেকে নবাবগঞ্জ ও আজিমপুর দুটি স্পটে গিয়ে অনেকটা সময় অপেক্ষা করে পণ্যবাহী ট্রাক না আসায় পলাশীর মোড়ে ছুটে এসেছেন। কিন্তু এখানে এসে বসে আছেন তো আছেনই, গাড়ির খবর নেই বলে জানান।

ভরদুপুরে ফুটপাতে বসে থাকা তিন নারীকে বসে বসেই ঘুমাতে দেখা যায়। সাহারা খাতুন নামে এক বৃদ্ধা জানান, চার ঘণ্টা ধরে ফুটপাতে বসে থেকে ক্লান্ত হয়ে ঘুমাচ্ছেন। পাশের আরেকজন বলেন, সরকারিভাবে পরিচালিত টিসিবির ট্রাকের পণ্য সরবরাহে সাধারণ মানুষ উপকৃত হলেও বিলম্বে ট্রাক পৌঁছানোয় অনেকের ভোগান্তি হয়। এক্ষেত্রে নির্ধারিত স্পটগুলোতে কখন ট্রাক আসবে তার উল্লেখ করলে ভালো হয় বলে তিনি মন্তব্য করেন।