অ্যাপে মেপে গণপরিবহনে ভাড়া দেবেন চট্টগ্রাম নগরবাসী

ভাড়া নিয়ে বিতর্ক নিরসনে এবার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)। পুলিশের উদ্যোগে বানানো হয়েছে একটি অ্যাপ, যেটিতে মেপে নগরে চলাচল করা গণপরিবহনে ভাড়া দিতে পারবেন সাধারণ মানুষ।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে ‘হ্যালো সিএমপি’ নামে অ্যাপটি উদ্বোধন করেন সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর।

এ সময় তিনি বলেন, ডিজেলের দাম বৃদ্ধির পর ভাড়া নিয়ে নগরের বিভিন্ন এলাকায় যাত্রী এবং চালক-হেলপারদের মধ্যে বিতর্ক হচ্ছে। এজন্য আমরা ডিজেলচালিত গাড়িতে লাল এবং গ্যাসচালিত গাড়িতে সবুজ স্টিকার লাগিয়েছি। এর পাশাপাশি একটি অ্যাপ বানিয়েছি, যেটি মেপে ভাড়া দিতে পারবেন সাধারণ যাত্রীরা৷ অ্যাপটিতে গন্তব্যের শুরু এবং শেষ স্থান নির্ধারণ করলেই স্ক্রিনে ভেসে উঠবে ভাড়া তালিকা। ওই তালিকায় থাকবে বাস ও মিনিবাস এবং গ্যাসচালিত ও ডিজেলচালিত ক্যাটাগরির ভাড়া।

এদিকে সম্প্রতি পুলিশের উদ্যোগে নগরের ৭০ স্থানে ৪১১টি ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। এসব ক্যামেরাও আজ (বৃহস্পতিবার) উদ্বোধন করা হয়েছে।

নগর পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ‘সিএমপির চোখ’ নামে একটি নিয়ন্ত্রণকক্ষের মাধ্যমে পুরো নগর নজরদারিতে রাখতে এসব ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ৪১১টি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। ধাপে ধাপে অপরাধপ্রবণ এলাকা টার্গেট করে মোট ৭০০টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে বিভিন্ন মামলা তদন্তে যেমন গতি আসবে, আবার ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ করতে সুবিধা হবে।

সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, সিসি ক্যামেরা স্থাপন একদিকে অপরাধীদের ভীতি বাড়াবে, অন্যদিকে সাধারণ মানুষের মধ্যেও সাহসের সঞ্চার হবে। সিএমপির অন্যতম বৃহৎ এ প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে পুরো এলাকা একটি চোখে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার শ্যামল কুমার নাথ, শামসুল আলম, সানা শামীমুর রহমান, উপ-কমিশনার আলী হোসাইনসহ নগর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।