যেসব কাজে নামাজ বাতিল হয়ে যায়

নামাজ অনেক গুরুত্বপূর্ণ ফরজ ইবাদত। ইসলামের প্রধান স্তম্ভগুলোর মধ্যে ঈমানের পরেই নামাজের অবস্থান। নামাজ পড়ার ক্ষেত্রে অনেক সতর্ক থাকতে হয়। এমন কিছু কাজ আছে যেগুলো করলে নামাজ বাতিল হয়ে যায়। সেই কাজগুলো কী?

নামাজ বাতিল হওয়ার কারণ
১. নামাজে ইচ্ছাকৃতভাবে কথা বলা
২. কিবলামুখী হয়ে নামাজে দাঁড়ানোর পর বিনা কারণে সম্পূর্ণ শরীর কিবলার দিক থেকে সরে যাওয়া।
৩. নামাজের সময় পেশাব-পায়খানার রাস্তা দিয়ে কোনো কিছু বের হওয়া।
৪. বিনা প্রয়োজনে নামাজ পড়া অবস্থায় মাত্রাতিরিক্ত নড়াচড়া করা।
৫. নামাজে অট্টহাসি দেওয়া।
৬. নামাজে ইচ্ছাকৃত রুকু-সিজদা বেশি করা।
৭. নামাজি ব্যক্তি ইচ্ছাকৃতভাবে ইমামের আগে গেলেও নামাজ হবে না।

সুতরাং মুমিন মুসলমানের উচিত, আল্লাহর ভয় ও আন্তরিকতার সঙ্গে যথাযথভাবে ধীরস্থিরতার সঙ্গে নামাজ পড়া। নামাজে শুধু আল্লাহর চিন্তায় মগ্ন থাকা জরুরি।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে নামাজ নষ্ট হওয়ার কারণগুলো থেকে বিরত থাকার তাওফিক দান করুন। আমিন।