কলম্বিয়ার মাদক সম্রাটকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেওয়া হবে

কলম্বিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড মাদকপাচারকারী ও অপরাধী চক্রের প্রধান দাইরো আন্তোনিও উসুগাকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। দেশটির সেনা, নৌ ও পুলিশ বাহিনী যৌথ অভিযান চালিয়ে স্থানীয় সময় শনিবার ( ২৩ অক্টোবর) দাইরো আন্তোনিও উসুগা ওরফে ওতোনিয়েলকে গ্রেফতার করে। কলম্বিয়ার গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, আটকের পর দাইরোকে দেশটির রাজধানী বোগোতার একটি সামরিক ঘাঁটিতে রাখা হয়।

কলম্বিয়া সরকার স্থানীয় সময় সোমবার (২৫ অক্টোবর) উচ্চ আদালতে একটি পিটিশন দায়ের করার কথা রয়েছে, যেখানে তাকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেওয়ার বিষয়টি জানানো হয়। দেশটির বিচারমন্ত্রী উইলসন রুইজ রয়টার্সকে জানান, পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে চার সপ্তাহ লাগবে।

কলম্বিয়া সরকার ওতোনিয়েলকে ধরিয়ে দিতে আট লাখ মার্কিন ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছিল এবং যুক্তরাষ্ট্র তার মাথার দাম পাঁচ মিলিয়ন ডলার ঘোষণা করেছিল।

ওতোনিয়েলকে পানামার সীমান্ত সংলগ্ন উত্তর-পশ্চিম কলম্বিয়ার অ্যান্টিওকিয়া প্রদেশে তার গ্রামীণ আস্তানা থেকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগেও বেশ কয়েকবার ৫০ বছর বয়সী এই মাদকপাচারকারীকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালানো হলেও তা সফল হয়নি। তাকে ধরতে এবার অভিযানে ২২টি হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হয়েছে এবং কলম্বিয়ার বিশেষ বাহিনীর পাঁচশ সদস্য এতে অংশ নেন।

১০ বছর আগে নববর্ষ উদযাপন পার্টিতে পুলিশের অভিযানে নিহত হন ওতোনিয়েলের ভাই। এরপর মাদকপাচার সংগঠনের দায়িত্ব পান ওতোনিয়েল। কলম্বিয়ার নিরাপত্তা বাহিনী এই চক্রকে দেশটির সবচেয়ে শক্তিশালী অপরাধী সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত করেছে। যুক্তরাষ্ট্রও এই সংগঠনকে ভারী অস্ত্রে সজ্জিত এবং সহিংস হিসেবে বর্ণনা করেছে।

এই চক্রটি আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক গড়ে তোলাসহ মানবপাচার, স্বর্ণপাচার এবং মাদকপাচারের সঙ্গে জড়িত। ধারণা করা হয়, এই অপরাধীচক্রের সদস্য সংখ্যা এক হাজার আটশর মতো।