শাহজালাল বিমানবন্দরে যাত্রীদের কমেছে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে আসা যাত্রীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর সংখ্যা কমেছে।

সবশেষ গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ৩৭টি ফ্লাইটে ছয় হাজার ১০১ জন শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। তাদের মধ্যে মাত্র ৪৫ জনকে পাঠানো হয় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে। আর বাকি ছয় হাজার ৫৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়।

এই বিমানবন্দরের হেলথ ডেস্কে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক কর্মকর্তা এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনা সংক্রমণ যখন ঊর্ধ্বমুখী ছিল, তখন দেশে আসা যাত্রীদের অধিকাংশকেই প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হতো। কোয়ারেন্টাইনে থাকার মেয়াদ ছিল ভিন্ন। কারো সাতদিন আবার কখনও ১৫ দিন থাকতে হতো।

সে সময় সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে জায়গা না হওয়ায় অনেককেই দুই ডজনেরও বেশি আবাসিক হোটেলে নিজ খরচে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হয়েছে।

এর মধ্যে আবার বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনার দুই ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। এ কারণে অধিকাংশ প্রবাসী যারা বিদেশে থেকে ফিরছেন, তারা সরাসরি বাড়ি গিয়ে কয়েকদিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকছেন বলে জানান বিমানবন্দরের দায়িত্বে থাকা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওই কর্মকর্তা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, করোনাকালে শাহজালাল বিমানবন্দর দিয়ে মোট ১৯ লাখ ছয় হাজার ৬৮৯ জন যাত্রী দেশে এসেছেন। তাদের মধ্যে ৮৬ হাজার ৩৮০ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে ও অবশিষ্ট যাত্রীদের হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়।