বেসরকারি চাল আমদানিতে এলসি খোলার সময় বাড়লো

বেসরকারিভাবে চাল আমদানির জন্য বরাদ্দ পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর ঋণপত্র (লেটার অব ক্রেডিট-এলসি) খোলার সময় আগামী ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

এলসি খোলার সময় বাড়িয়ে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। চাল আমদানির জন্য ১৭ আগস্ট বরাদ্দ দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোকে এলসি খোলার জন্য দেওয়া ১৫ দিন সময় ৩১ আগস্ট শেষ হয়েছে। ১৮ আগস্ট বরাদ্দ পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর সময় শেষ হচ্ছে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর)।

বিদেশ থেকে পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে আমদানিকারকের পক্ষে তার ব্যাংক রপ্তানিকারককে পণ্যমূল্য পরিশোধের যে নিশ্চয় দেয় সেটাই হচ্ছে এলসি বা ঋণপত্র।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, গত ১৭ আগস্ট ও ১৮ আগস্ট বেসরকারিভাবে নন-বাসমতি সিদ্ধ চাল ও আতপ চাল আমদানির জন্য বরাদ্দ পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর অনুকূলে বরাদ্দ করা চাল আমদানির লক্ষ্যে এলসি খোলার সময়সীমা চাল আমদানির স্বার্থে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

এলসি সম্পর্কিত তথ্য (পোর্ট অব এন্ট্রিসহ) তাৎক্ষণিকভাবে ই-মেইলে (sasep@mofood.gov.bd) জানাতে হবে। এই সময় আর বাড়ানো হবে না বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

কমানো শুল্কহারে সাত দফায় মোট ৪১৫ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ১৬ লাখ ৯৩ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছে সরকার। এর মধ্যে নন-বাসমতি সিদ্ধ চাল ১৪ লাখ ৮৩ হাজার টন ও আতপ দুই লাখ ১০ হাজার টন।

গত ১৭ আগস্ট ৪১ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে চার লাখ ১০ হাজার টন, ১৮ আগস্ট ৬৯ প্রতিষ্ঠানকে চার লাখ ১৮ হাজার টন, ২১ আগস্ট ৯১ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে তিন লাখ ৯১ হাজার, ২২ আগস্ট ৭৩ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে ২ লাখ ২২ হাজার টন, ২৩ আগস্ট ৪১ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে ৯৪ হাজার টন, ২৪ আগস্ট ৩৪ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে ৫৭ হাজার টন, ৩০ আগস্ট ৭৯ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ এক হাজার টন সিদ্ধ ও আতপ চাল আমদানির জন্য বরাদ্দ দিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়।