খুলনার চার হাসপাতালে আরও ৬ জনের মৃত্যু

খুলনার চার হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ছয় জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২ আগস্ট) সকালে পৃথকভাবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর মধ্যে খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে একজন, খুলনা জেনারেল হাসপাতালে একজন, গাজী মেডিকেল হাসপাতালে দুজন এবং শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকালপারসন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার বলেন, হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় সদর থানা এলাকার জোবেদা (৭৭) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১২০ জন। এর মধ্যে রেড জোনে ৪০ জন, ইয়েলো জোনে ৪৭ জন, আইসিইউতে ২০ জন এবং এইচডিইউতে ১৩ জন ভর্তি রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৯ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৪ জন।

খুলনার শহীদ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. প্রকাশ দেবনাথ জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- নগরীর পূর্ববানিয়াখামার এলাকার তাহেরা বেগম (৬২) ও মোল্লাহাটের চরকুলিয়ার সালমা আক্তার (৬০)।
হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি রয়েছেন ৪১ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে রয়েছে ১০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ছয়জন রোগী ভর্তি হয় আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ছয়জন।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে রূপসার হাওয়া বেগম (৬৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪৫ জন। তার মধ্যে ১৮ জন পুরুষ আর ২৭ জন নারী। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন চারজন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন তিনজন।

খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৬৩ জন ভর্তি রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১০ জন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৪ জন। আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন ১০ জন এবং এইচডিইউতে তিনজন।

গাজী মেডিকেল হাসপাতালের সত্ত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- নগরীর করিমনগরের নজরুল ইসলাম (৫৮) ও নড়াইল লোহাগড়ার মো. মশিউল আজম (৭১)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬২ জন। আইসিইউতে রয়েছেন পাঁচজন এবং এইচডিইউতে সাতজন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছেন আটজন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন পাঁচজন।