নরসিংদীতে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ

নরসিংদীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের যেখানে সেখানে অবাধ বিচরণের ফলে আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা সংক্রমণ। ফলে নিয়ন্ত্রনের বাহিরে চলে যাচ্ছে জেলার করোনা পরিস্থিতি। গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২৪০ জন এবং করোনায় আক্রান্ত বা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যূ হয়েছে একজনের। শনাক্তের বিবেচনায় গড় হার ৪০.৬০%।

সোমবার (২৬ জুলাই) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নরসিংদীর সিভিল সার্জন মো. নূরুল ইসলাম। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের মোট সংখ্যা দাড়িয়েছে ৬ হাজার ৩৩৫ জনে। মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৭০ জন।

সিভিল সার্জন জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ৫৯১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এরমধ্যে ২৫০ জনের অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ১১৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া আরটিপিসিআর ল্যাবে ৩৪১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১২৬ জন শনাক্ত হয়। নমুনার সংখ্যা বিবেচনায় শনাক্তের গড় হার ৪০ দশমিক ৬০ শতাংশ।

শনাক্তদের মধ্যে সদর উপজেলায় ১২১ জন, রায়পুরায় ১৮ জন, বেলাবতে ২৩ জন, মনোহরদীতে ৭জন, শিবপুরে ৩৮ জন ও পলাশে ৩৩ জন।

এ পর্যন্ত শনাক্তদের মধ্যে সদর উপজেলায় ৩৭০০ জন, শিবপুরে ৬২৭ জন, পলাশে ১০৩৯ জন, মনোহরদীতে ৩০২ জন, বেলাবতে ৩৩২ জন ও রায়পুরাতে ৩৩৫ জন।

নরসিংদী জেলা থেকে এ পর্যন্ত ৩৫ হাজার ৪৪৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। বর্তমানে করোনা রোগীর সংখ্যা ১৫০৬ জন। বর্তমানে ৮০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১০৯ জন। এছাড়া হাসপাতালে আইসোলেশনে আছেন ৭৩ জন ও হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ১৪৩৩ জন। অপর দিকে গত ২৪ ঘন্টায় আইসোলেশন মুক্ত হয়ে বাড়ী ফিরে গেছেন ২২ জন।

গত ২৪ ঘন্টায় রায়পুরা উপজেলায় কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে ১ জন মৃত্যু বরণ করেন। জেলায় এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ৭০ জন। এর মধ্যে নরসিংদী সদরে ৩৪, পলাশে ০৬, বেলাব ০৭, রায়পুরা ০৯, মনোহরদী ০৫ ও শিবপুরে ০৯ জন।