স্ত্রীকে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালানোর নাটক স্বামীর

নাটোরের গুরুদাসপুরের মতিবাড়ী এলাকায় যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী সাগর হোসেনকে (২৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। শনিবার (১৭ জুলাই) রাতে সিআইডির একটি দল অভিযান পরিচালনা করে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের মিয়ার বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

রোববার (১৮ জুলাই) দুপুরে সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘গ্রেফতার সাগর হোসেন গত ১৩ জুলাই রাতে তার স্ত্রী সুবর্ণা খাতুনের (২১) মুখে কাপড় গুজে লাঠি দিয়ে নৃশংসভাবে মারধর করেন। এর এক পর্যায়ে সুবর্ণা মারা যান। পরে সিলিংয়ের সঙ্গে ওড়না বেঁধে সুবর্ণাকে ঝুঁলিয়ে দিয়ে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করেন সাগর হোসেন।’

তিনি বলেন, ‘এ ঘটনার পর ১৫ জুলাই সুবর্ণার বাবা হাফিজুল সরদার বাদী হয়ে নাটোরের গুরুদাসপুর থানায় সাগর হোসেন এবং তার মা সাবিনা বেগমকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। এরপর ঘটনাস্থল থেকেই ১৫ জুলাই সাবিনা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়।’

মুক্তা ধর জানান, তিন বছর আগে সাগরের সঙ্গে সুবর্ণার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য সুবর্ণাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন। গত প্রায় ২৫ দিন আগে গরুর ব্যবসার কথা বলে সুবর্ণার পরিবার থেকে টাকা নেয়ার জন্য তাকে চাপ দেন সাগর। এর জের ধরেই পরে সুবর্ণাকে হত্যা করেন সাগর।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাগর হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছেন বলেও জানান এই সিআইডি কর্মকর্তা।