চাপ থাকলেও ভোগান্তি নেই পাটুরিয়া ঘাটে

লকডাউন শিথিল হওয়ার চতুর্থ দিনে ঘরমুখো মানুষ ও যানবাহনের চাপ রয়েছে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে। প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদ করতে রাজধানী ছাড়ছে এসব মানুষ। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘাটে যানবাহন ও যাত্রীর চাপও বাড়ছে। তবে পারাপারে বড় ধরনের কোনো দুর্ভোগ ও ভোগান্তি পড়তে হচ্ছে না যাত্রীদের।

রোববার (১৮ জুলাই) সকাল ১০টা পর্যন্ত শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক ছাড়া পাটুরিয়া ঘাটে অপেক্ষমাণ কোনো যানবাহন দেখা যায়নি।

সরেজমিন দেখা গেছে, রোববার সকাল থেকেই বাস, প্রাইভেটকারসহ বিভিন্ন যানবাহনে করে যাত্রীরা ঘাটে পৌঁছায়। গত দুই দিনের তুলনায় ঘাটে এদিন প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের চাপ বেশি। তবে যাত্রী ও যানবাহনের চাপ থাকলেও ঘাটে পৌঁছেই ফেরি পার হতে পারছে যাত্রীরা। দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা প্রতিটি ফেরিতেই রাজধানীমুখী কোরবানির পশুবাহী ট্রাক পার হচ্ছে বেশি।

বিআইডব্লিউটিসির আরিচা অঞ্চলের ডিজিএম মো. জিল্লুর রহমান জানান, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটে বর্তমানে ছোট-বড় ১৬টি ফেরি চলাচল করছে। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী যান ও কোরবানির পশুবাহী ট্রাক পারাপার করার কারণে সাধারণ পণ্যবাহী কিছু ট্রাক পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। তবে রাতে যাত্রীবাহী যানবাহন কমে গেলে সেগুলো পারাপার করা হয়।