লকডাউন শিথিল হওয়ায় আমার ভয় হচ্ছে: শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, লকডাউন শিথিল হওয়ায় আমার ভয় হচ্ছে। কোরবানির হাট বসেছে।

মানুষের মুখে মাস্ক নেই। কেউ নিয়মকানুন মানছেন না। আপনার অসুখ হলে আপনার বাচ্চাকে কে দেখবে। নিজেকে রক্ষা করুন এবং আপনার আশেপাশের লোকজনকে সচেতন করুন।

 

বুধবার (১৪ জুলাই) সদর উপজেলায় ত্রাণ বিতরণের সময় এ কথা বলেন তিনি।

শামীম ওসমান বলেন, আমি আপনাদের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। জাতির পিতার কন্যার কাছ থেকে এই সামান্যতম উপহার আমাদের উচিত ছিল আপনাদের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া। কিন্তু আপনারা জানেন আপনারা বাদেও অনেক শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে এই উপহার পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব রয়েছে। গতকালও প্রধানমন্ত্রী প্রায় ৩ হাজার ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন যাতে তাদের দেওয়া যায়। আল্লাহ দুনিয়ায় আজাব দিয়েছেন এখন আমাদের কিছু করার নেই। একটাই পথ, আল্লাহর কাছে মাফ চাওয়া। আমরা হয়ত ঠিকমত মাফ চাইছি না, নিয়মকানুনও মানতে পারছি না।

তিনি আরও বলেন, আপনি থাকলে আপনার বাচ্চারা ভালো থাকবে। মাস্ক পড়ে, দূরত্ব মেনে, হাত ধুয়ে চলা গেলে আল্লাহ আমাদের বাঁচাবেন। আপনারা মনে করছেন আমরা আপনাদের জন্য অনেক কিছু করে ফেলছি, আসলে তা না। আমরা একটা কথা বলতে চাই, আপনারা যে আমাদের কতবড় উপকার করছেন তা আপনাদের কল্পনার বাইরে। আপনারা এই উপহার নিয়ে আমাদের সওয়াব কামানোর সুযোগ করে দিয়েছেন। তাই আমি আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই, ধন্যবাদ জানাই।

তিনি বলেন, সারা বাংলাদেশের লাখ লাখ মানুষ অভাবে আছেন। বিশেষত নিন্মবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো, শুধু আপনারা নন। সকলেই সমস্যায় পড়েছেন। আল্লাহ এই আজাব দিয়েছেন। আমরা সবাই যদি আল্লাহর কাছে কান্নাকাটি করি, মাফ চাই আল্লাহ মাফ করবেন। যারা খেটে খওয়া মানুষ আল্লাহ তাদের দোয়া কবুল করেন। আমি আপনাদের কাছে দোয়া ভিক্ষা চাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য। আমরা ছোট একটা দেশ, সতেরো কোটি মানুষ। দেড় বছর হয়ে গেছে। তিনি এখনও চেষ্টা করছেন মানুষ যেন ভালো থাকেন।