শ্রমিকদের প্রাণহানি মেনে নেয়া যায় না : বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেছেন, এভাবে শ্রমিকদের প্রাণহানি মেনে নেয়া যায় না। কারখানা নির্মাণে কোনো অনিয়ম চলবে না। কেউ অনিয়ম করলে তাকে ছাড় দেয়া হবে না।

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সেজান জুস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে মানুষের মৃত্যু হওয়ার ঘটনায় কারখানাটি পরিদর্শন করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা। রোববার (১১ জুলাই) দুপুরে নেতারা কারখানায় এসে পৌঁছান। পরে তারা নিহত ও আহতদের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেন এবং কারখানাটি ঘুরে দেখেন। এ সময় রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, শ্রমিক ভাই-বোনেরা দেশের অর্থনীতি সচল রাখছে। ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসন ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আমার দাবি থাকবে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করবেন।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৫টার পর সজীব গ্রুপের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান হাসেম ফুডস অ্যান্ড বেভারেজের (সেজান জুস নামে পরিচিত) কারখানায় আগুন লাগে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৫২ জন শ্রমিক নিহত এবং অসংখ্য আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।