রাজধানীতে হাত-পা বাঁধা কেয়ারটেকারের মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীর উত্তরায় একটি বাসা থেকে সুবল পাল নামের (৫০) এক কেয়ারটেকারের হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার (১১ জুলাই) সকাল সোয়া ৮টার দিকে তিন নম্বর সেক্টরের ১০ নম্বর রোডের একটি ভবনের নিচতলার বাথরুম থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত সুবল পালের গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা লাটুরিয়ায়। তিনি ঢাকার উত্তরায় থাকতেন।

নিহতের ছেলে প্রান্ত পাল বলেন, ‘আমার বাবা ওই বাসায় প্রায় ১০ বছর ধরে কেয়ারটেকারের কাজ করেন। কারা হত্যা করেছে আমরা এ বিষয়ে কিছু বলতে পারছি না।’

উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইউসুফ আলী বলেন, ‘খবর পেয়ে ওই ভবনের নিচতলার বাথরুমে প্লাস্টিকের দড়ি দিয়ে হাত-পা বাঁধা ও গলায় এবং কানের নিচে ছুরিকাঘাতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি সুবল পালকে। পরে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।’

তিনি জানান, ধারণা করা হচ্ছে কেউ বাসার ভেতরে ঢুকে দড়ি দিয়ে বেঁধে গলায় চাকু দিয়ে আঘাত করে সুবল পালকে হত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।