বীরগঞ্জে বেহাল কাঁচা রাস্তায় পথচারীদের ভোগান্তি

মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, বীরগঞ্জ দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুরের বীরগঞ্জে বেহাল কাঁচা রাস্তায় দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন এলাকাবাসী। তা লাঘবে দ্রুত পাকা সড়ক তৈরির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। উপজেলার শিবরামপুর ইউপি থেকে মুরারীপুর বাজার হয়ে দেউলি রথবাজার পর্যন্ত প্রায় ৬ কিলোমিটার বেহাল অবস্থা। এটি দিয়ে হাঁটা ও যান চলাচলে ভোগান্তি হচ্ছে। এলাকায় উৎপাদিত কৃষিপণ্য সহ বিভিন্ন মালামাল নিয়ে হাটবাজারে যেতে পারছে না মানুষ। এ ছাড়া স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসার শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারীদের দুর্ভোগের শেষ নেই। মুরারীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সহিম উদ্দিন জানান, ওই পথে দূর-দূরান্ত থেকে ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক-কর্মচারী যথাসময়ে বিদ্যালয়ে পৌঁছাতে পারছেন না। ফলে স্বাভাবিক কর্মকাণ্ড ব্যাহত হচ্ছে। মুরারীপুর রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক ভবনের মালিক আব্দুস সাত্তার জানান, কাদার রাস্তায় নির্ধারিত সময়ে ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারী পৌঁছাতে পারেন না। ফলে বিভিন্ন ভাতাভোগী, ঋণগ্রহীতা ও পরিশোধকারী কৃষকদের সেবা পেতে বিলম্ব হচ্ছে। মুরারীপুর বাজারের ডেকোরেটর ব্যবসায়ী ধীরেন চন্দ্র বর্ম্মন জানান, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মালামাল পরিবহন খুব কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। সময়ে অফিসে উন্নয়ন কর, খাজনা পরিশোধ করা যায় না, জমি খারিজে সম্যাসা হয়।শিবরামপুর ইউপি চেয়ারম্যান জনক চন্দ্র অধিকারী জানান, ইউনিয়নের অধিকাংশ রাস্তা মাটির। ফলে দীর্ঘদিন ভোগান্তি পোহাচ্ছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। উপজেলা প্রকৌশলী মো. আব্দুল মান্নাফ জানান, ওই রাস্তাটির বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। বরাদ্দ পেলে বর্ষা শেষে তা পাকাকরণের নির্মাণকাজ শুরু হবে। দিনাজপুর-১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনের সাংসদ মনোরঞ্জন শীল গোপাল জানান, শিবরামপুর সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলো দ্রুত বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরে চিঠি দেওয়া হয়েছে