বন্যা কবলিত যুক্তরাষ্ট্রে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ৪০ হাজার পরিবার

যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান অঙ্গরাজ্যে রাতভর বৃষ্টিপাতের ফলে মেট্রো ডেট্রয়েট ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েছে। অনেক গাড়িই সড়কে আটকে গেছে। তাছাড়া ৪০ হাজার ঘর-বাড়ি এরই মধ্যে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

হোয়াইট লেক টাউনশিপে ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের আবহাওয়াবিদ স্টিভ কনসিডাইন জানিয়েছেন, ওয়েইন কাউন্টির গ্রোস পয়েন্টে গত ১২ ঘণ্টায় ৬.৫ ইঞ্চি পরিমাণ বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে। ডেট্রয়েট থেকে অ্যান আরবারে ৪ থেকে সাড়ে ৬ ইঞ্চি বৃষ্টিপাত হয়েছে। যদিও সকালে দিকে বৃষ্টির পরিমাণ কিছুটা হ্রাস পেয়েছে।

ওকল্যান্ড এবং ম্যাকম্বের কাউন্টারে ফ্রিওয়ে এবং পাশের রাস্তায় কিছু পুকুর রয়েছে বলে জানিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। তাই গাড়িচালকদের ঘুরে দাঁড়াতে এবং স্থির পানিতে গাড়ি না চালানোর আহ্বান জানিয়েছে পুলিশ। মোটর গাড়ির যেসব চালক ফ্রিওয়েতে যানবাহন রেখে চলে গেছেন তাদের অবস্থান জানাতে রাজ্য পুলিশ পোস্টে যোগাযোগ করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

নগর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ডেট্রয়েটের কিছু অংশ ৬ ইঞ্চি বৃষ্টিপাতের কারণে রাস্তা এবং অনেক বাড়ির বেসমেন্ট প্লাবিত হয়েছে। ডেট্রয়েট পানি ও নর্দমা ব্যবস্থা বিভাগ, গণপূর্ত এবং সাধারণ পরিষেবাগুলো ঝড়ের প্রভাব মূল্যায়ন করছে এবং ক্ষতিগ্রস্তদের দাবি উপস্থাপনের জন্য একটি হটলাইন স্থাপনে কাজ করছে।

নগর কর্মকর্তারা বলেছেন, বাসিন্দাদের পানির মধ্য দিয়ে গাড়ি চালানো উচিত নয়। ঝড়ের কারণে অনেক ড্রেন পূর্ণ হয়ে গেছে। ময়লা-আবর্জনায় হয়তো ড্রেন ভরে গেছে। এ জন্য গাড়ির চালকদের ড্রেন এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বেসমেন্টে বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম, আউটলেট এবং ফিউজ বাক্স থাকলে দ্রুত পানি পরিষ্কার করার অনুরোধ জানিয়েছেন নগর কর্মকর্তারা।

ডিয়ারবর্নের পূর্ব প্রান্তের পানির স্তর হ্রাস পেতে শুরু করছে। শহরের বেশিরভাগ আন্ডারপাসগুলো প্লাবিত এবং একাধিক যানবাহন আটকা পড়ে রয়েছে।

ডিয়ারবর্ণের লেভাগুড এলাকা এবং ফোর্ড রোড, বিচ ডেইলির কাছে এবং রুজ নদীর কাছে ডিয়ারবর্ন হাইটসে বাড়ির বেসমেন্ট প্লাবিত হয়েছে।

ডিয়ারবর্ন এবং হ্যামট্রামকের সীমান্তে ওয়ারেন্ডেলে রাতারাতি সড়ক বন্যায় আক্রান্ত হয়েছে যার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে এসেছে।