নরসিংদীতে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আনোয়ার জেল হাজতে

আশিকুর রহমান নিজস্ব প্রতিনিধি : মারামারি মামলায় আদালতে জামিন চাইতে গিয়ে কারাগারে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন।

নরসিংদীর সদর উপজেলার মাধবদীতে আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ২ জন গুলিবিদ্ধ ও ভাংচুরের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলায় জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন কে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।২৪ জুন বৃহস্পতিবার দুপুর ৩ টার দিকে আদালতে আনোয়ার স্বশরীরে হাজির হয়ে জামিন চাইলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এই তথ্যটি আদালতের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া গেছে। জামিন নামঞ্জুর হওয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন ( ৪৫ ) রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সাবেক কমিশনার জাকারিয়ার ভাই ও মাধবদী পৌর মেয়রসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে করা মামলার বাদী। পুলিশ ও রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের সূত্রে জানা যায়, গত ১৬ জুন সন্ধ্যায় রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন মাধবদী পৌরসভার সাবেক কমিশনার ও সদর থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. জাকারিয়া (৩৯) ও বালাপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব আবুল কালাম (৩০)। ১৭ জুন মাধবদী থানায় মামলা দুটি দায়ের করা হয়।

এর মধ্যে সমাবেশ স্থলে হামলা ও গুলির ঘটনায় মাধবদীর পৌর মেয়র মোশারফ হোসেন মানিকসহ ১১ জনের নাম উল্লেখ্য করে একটি মামলা দায়ের করেন সাবেক কমিশনার গুলিবিদ্ধ মোঃ জাকারিয়ার ভাই জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন। একই ঘটনায় হামলা ও মারধরের অভিযোগ এনে মেয়র সমর্থক মোজাম্মেল মিয়া বাদী হয়ে মোঃ আনোয়ার হোসেনকে প্রধান আসামী করে ও তার ভাই সাবেক কমিশনার গুলিবিদ্ধ জাকারিয়াসহ মোট ৭ জনের নামে অপর আরেকটি মামলা দায়ের করেন। গত ২৪ জুন মঙ্গলবার দুপুরে পৌর মেয়রসহ ৬ জন আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত ৫ জনের জামিন মঞ্জুর করেন।