সর্বশেষ :

লালমনিরহাটে কালবৈশাখী ঝরে ক্ষতিগ্রস্ত ঘর মেরামত করে দিলেন ইউএনও

মোঃ মাসুদ রানা রাশেদ: লালমনিরহাট সদর উপজেলার ১নং মোগলহাট ইউনিয়নের ফুলগাছ গ্রামের জলঢাকা এলাকায় ঝরো বাতাসে গৃহহীনদের আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘরের চাল উড়ে গিয়েছিল।

জানা যায়, এক মাস আগে রাতে বৃষ্টির সঙ্গে বাতাসের সময় লালমনিরহাট সদর উপজেলার ১নং মোগলহাট ইউনিয়নের ফুলগাছ গ্রামের জলঢাকা এলাকায় হালিমা খাতুনের ঘরের চাল উড়ে যায় এবং ভেঙ্গে পরে বারান্দার ৩টি পিলার।

হালিমা খাতুন (৩২) বলেন, তার ঘরটিই শুধু ক্ষতি হয়েছে। তার কোনও সামর্থ্য নেই এটি মেরামত করার।

লালমনিরহাট সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায় তাৎক্ষণিক ভাবে খোঁজ খবর নিয়ে ঘরটি মেরামত করে দেন।

জাহিদুল ইসলাম (৩৫) বলেন, সরকার ঘর দিছে তা কাল বৈশাখী ঝরে ভেঙ্গে পড়ে। ইউএনও ঘরটি ঠিক করে দেওয়ায় হামরা খুব খুশি।

সেখানকার আশ্রয়ণ প্রকল্পের সুবিধাভোগী পরিবারগুলো বলেন, ঘর ও জমি তাদেরকে হস্তান্তর করা হয়েছে। কিন্তু বিদ্যুৎ ও নলকূপের ব্যবস্থা ছিলো না ইউএনও তা দিয়েছে। চলাচলের রাস্তা ছিলো না ইউএনও নিজ উদ্যোগে রাস্তার ব্যবস্থা করতেছেন।

লালমনিরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায় বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার দেওয়া ঘর ভূমিহীন হালিমা খাতুনের পরিবারকে দেওয়া হয়েছে। তবে কালবৈশাখী ঝরে ঘরটি ভেঙ্গে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত ঘরটি পুনরায় মেরামত করে দিয়ে আবারও পরিবারটিকে ঘরে উঠানো হয়েছে।