রেলের বহরে ছুটছে আরও ১৯ জোড়া ট্রেন

মহামারির সংক্রমণ পরিস্থিতি সামাল দিতে দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার পর আজ থেকে ফের রেলের বহরে ছুটবে আরও ৯ জোড়া আন্তঃনগর ও ১০ জোড়া মেইল ও কমিউটারসহ ১৯ জোড়া ট্রেন। সরকারঘোষিত বিধিনিষেধের কারণে দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে এসব ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লকডাউনের কারণে গত ৫ এপ্রিল সব যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে ২৪ মে থেকে আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে ২৪ জোড়া আন্তঃনগর এবং ৯ জোড়া মেইল ও লোকাল ট্রেন চলছে। বর্তমানে আন্তঃনগর ট্রেনের সব টিকিট অনলাইন ও অ্যাপে বিক্রি হচ্ছে। এরই মধ্যে মঙ্গলবার (৮ জুন) থেকে অর্ধেক টিকিট স্টেশনের কাউন্টার থেকে বিক্রি শুরু হয়েছে।

আজ থেকে যেসব আন্তঃনগর ট্রেন চালু হচ্ছে- ঢাকা-ময়মনসিংহ-তারাকান্দার ‘অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস’, ঢাকা-সিলেটের ‘জয়ন্তিকা/উপবন এক্সপ্রেস’, চট্টগ্রাম-সিলেটের ‘পাহাড়িকা/উদয়ন এক্সপ্রেস’, রাজশাহী-চিলাহাটির ‘বরেন্দ্র এক্সপ্রেস’, খুলনা-চিলাহাটির ‘সীমান্ত এক্সপ্রেস’, ঢাকা-কুড়িগ্রামের ‘কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’, পঞ্চগড়-ঢাকার ‘পঞ্চগড় এক্সপ্রেস’ এবং পঞ্চগড়-রাজশাহীর ‘বাংলাবান্ধা এক্সপ্রেস’।

এছাড়া ১০ জোড়া মেইল ও কমিউটারগুলো হচ্ছে- ঢাকা/চট্টগ্রাম মেইল, সুরমা মেইল, তিতাস কমিউটার, দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার, ময়মনসিংহ এক্সপ্রেস, মহুয়া কমিউটার, রাজবাড়ী এক্সপ্রেস, বিরল কমিউটার, বগুড়া কমিউটার এবং কলেজ ট্রেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ রেলওয়ের বহরে ১০২ জোড়া আন্তঃনগরসহ মোট ৩৬২ জোড়া যাত্রীবাহী ট্রেন রয়েছে। বিধিনিষেধের মধ্যে দুই ধাপে এরই মধ্যে ৫২ জোড়া চালু হয়েছে। করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে এসব ট্রেনে মোট আসনের অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করা হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ।