টেকনাফে ব্যাগ ও বস্তা ভর্তি ইয়াবা স্বর্ণের বার, নগদ টাকা উদ্ধার : আটক-১

 
মুহাম্মদ জুবাইর টেকনাফ কক্সবাজার  প্রতিনিধি  : টেকনাফে র‍্যাব- বিজিবির পৃথক অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা স্বর্ণের বার ও নগদ টাকাসহ একজনকে আটক করা হয়েছে।  আটকব্যাক্তি হচ্ছে
 দক্ষিণ ডেইল পাড়ার মৃত নজির আহমদের পুত্র নুরুল আলম (৪৫)।
সুত্রে জানা যায়,  ৮জুন দিবাগত রাত সাড়ে ৯টায় র‌্যাব-১৫ (সিপিসি-১) টেকনাফ ক্যাম্পের একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের দক্ষিণ ডেইল পাড়ায় জনৈক মঞ্জুর আহমদের দোকানের সামনে অভিযানে যায়। এসময় র‍্যাবের অভিযান থেকে রক্ষা পেতে একই এলাকার নজির আহমদের পুত্র নুরুল আলম (৪৫) পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে একটি ব্যাগসহ তাকে আটক করে। পরে ব্যাগটি তল্লাশী করলে সেখানে ৩২হাজার পিস ইয়াবা, ৫৭ ভরি ওজনের ৪টি স্বর্ণের বার ও নগদ সাড়ে ৪লক্ষ টাকা পাওয়া যায়।
৯জুন (বুধবার) সকাল ১১টায় কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে অধিনায়ক উইং কমান্ডার আজিম আহমদ উক্ত ঘটনার অভিযানের বিবরণ তুলে ধরেন।
কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) সিনিয়র এএসপি আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, এই ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়েরের পর জব্দকৃত ইয়াবা, স্বর্ণের বার ও নগদ টাকাসহ ধৃত মাদক কারবারীকে টেকনাফ মডেল থানায় সোর্পদ করা হয়েছে।
এদিকে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন ( ২ বিজিবি)  ৯ জুন রাতের প্রথম প্রহর ১ টার দিকে মিয়ানমার হতে ইয়াবার চালান নিয়ে সাঁতরিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশপথে
নাফনদী পেরিয়ে জালিয়ারদ্বীপের দিকে আসতে থাকে।
এসময় বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে পাচার কারীরা বস্তাটি ফেলে নদীতে ডুবদিয়ে পালিয়ে যায়।বস্তাটি উদ্ধার করে খোলা হলে সেখানে ৩০ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। এঘটনায় কোন পাচারকারীকে আটক বা সনাক্ত করতে পারেনি বিজিবি।
টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২বিজিবি) অধিনায়ক মোঃ ফয়সল হাসান খান ( বিজিবিএম, পিএসসি) পালিয়ে যাওয়া ইয়াবা পাচারকারীদের চিহ্নিত করার কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।