ঢাকায় থেমে থেমে বৃষ্টি, জলাবদ্ধতার আশঙ্কা

জুনের প্রথম সপ্তাহেই ঢাকায় দুই দিন ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে। তার মধ্যে ১ জুন তিন ঘণ্টায় ৮৫ মিলিমিটার এবং গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ১১৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে রাজধানীতে। এই দুই দিনের বৃষ্টিতে ঢাকায় ব্যাপক জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছিল। মানুষের ভোগান্তিও ছিল চরমে।

আজও দুপুর সোয়া ২টার পর ফের বৃষ্টি শুরু হয়েছে। স্বল্প সময়ের এই অল্প বৃষ্টিতেই বিভিন্ন রাস্তায় পানি জমতে শুরু করেছে। বৃষ্টিতে গরম থেকে রেহাই পাওয়ার প্রশান্তি মিললেও রাজধানীবাসীর মনে জলাবদ্ধতার আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

পাশাপাশি এখনকার প্রতিবারের বৃষ্টিতেই ক্রমাগত বজ্রপাত হচ্ছে। আজকেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি।

jagonews24

এদিকে আজ রোববার (৬ জুন) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে- ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলাদেশ অতিক্রম করে আসাম পর্যন্ত অবস্থান করছে। অপর একটি লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ থেকে উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন উপকূল পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু আরও অগ্রসর হওয়ার জন্য আবহাওয়াগত পরিস্থিতি অনুকূলে রয়েছে। আগামী তিন দিনে এই মৌসুমি বায়ু টেকনাফ উপকূল পর্যন্ত অগ্রসর হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

jagonews24

তাপপ্রবাহের বিষয়ে তারা বলেছে, ফরিদপুর, দিনাজপুর ও নীলফামারী অঞ্চলসহ রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং এটি কিছু এলাকা থেকে প্রশমিত হতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।