নওগাঁয় শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণ ঘটনায় বগুড়া থেকে অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ

 শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ নওগাঁয় (৭) বছর বয়সী শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণ ঘটনায় বগুড়ার সান্তাহার থেকে অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ। নওগাঁর সাপাহারে ২য় শ্রেণীতে পড়ুয়া ঐ ছাত্রীকে নিজ শয়ন ঘরে নিয়ে ধর্ষন করে রক্তাক্ত অবস্থায় রেখে পালিয়ে যান ধর্ষক। পরে ছাত্রীটিকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।

গত ২৬ মে বুধবার নওগাঁর সাপাহার উপজেলার গোয়ালা ইউনিয়নের সামসুদ্দীনের ছেলে ইমামুল হক (৪০) এর ৪ বছর বয়সী শিশুর সাথে খেলা করার সময় ৭ বছর বয়সী ২য় শ্রেণীতে পড়ুয়া ছাত্রীকে ইমামুল হক কৌশলে তার নিজ শয়ন ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করেন এতে ছাত্রীর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ শুরু হলে ফেলে রেখে ধর্ষক পালিয়ে গেলে শিশুটিকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন স্বজনরা।

এঘটনায় শিশুর পিতা বাদি হয়ে সাপাহার থানায় মামলা দায়ের করলে থানা পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে মঙ্গলবার পালিয়ে থাকা অভিযুক্তকে পার্শ্ববর্তী বগুড়া জেলার সান্তাহার এলাকা থেকে আটক করেন। সাপাহার থানার ওসি তারেকুর রহমান সরকার জানান, ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পলাতক ছিলো, তারপর কৌশলে অভিযান চালিয়ে শিশু ধর্ষণে অভিযুক্ত আসামীকে আজ সান্তাহার থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।