আজ গ্রিলড চিকেন খাওয়ার দিন

গ্রিলড চিকেন দেখলেই জিভে নিশ্চয়ই পানি চলে আসে! এটি খেতে খুবই সুস্বাদু। সাধারণত বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট থেকে কিনেই খাওয়া হয়ে থাকে গ্রিলড চিকেন। তবে চাইলেই কিন্তু ঘরে তৈরি করে নিতে পারবেন মজাদার গ্রিলড চিকেন।

নিশ্চয়ই ভাবছেন, ঘরে তো গ্রিলড চিকেন তৈরির মেশিন নেই! তাহলে উপায়? আপনার ওভেনে যদি গ্রিলড করার অপশন থাকে; তাহলে ওভেনেই আস্ত মুরগির গ্রিলড তৈরি করে নিতে পারবেন। অন্যদিকে চাইলে চুলাতেও রেস্টুরেন্টের মতো পারফেক্ট গ্রিলড চিকেন তৈরি করে নিতে পারবেন ঝামেলা ছাড়াই। সেক্ষেত্রে মুরগি রোস্টের মতো কেটে নিতে হেবে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক রেসিপি-

উপকরণ

১. আস্ত মুরগি চামড়াসহ (১ কেজি পরিমাণ, স্কোর করে নেয়া )

২. আদা বাটা ৩ চা চামচ

৩. রসুন বাটা ২ চা চামচ

৪. হলুদ গুঁড়ো আধা চা চামচ

৫. দারচিনি গুঁড়ো আধা চা চামচ

৬. মেথি গুঁড়ো আধা চা চামচ

৭. শুকনা মরিচ টালা গুঁড়ো পরিমাণমতো

৮. ড্রাই মিন্ট আধা চা চামচ ( ড্রাই মিন্ট না পেলে তাজা পুদিনার পেস্টও দিতে পারেন )

৯. রং অল্প (ইচ্ছা)

১০. লেবুর রস ৩ টেবিল চামচ

১১. লবণ স্বাদমতো

১২. তেল ২ টেবিল চামচ

পদ্ধতি

একটা বাটিতে উপরের সব মশলা গুলো, তেল, লেবুর রস, ১/৪ কাপ পানিতে মিশিয়ে পেস্ট এর মতো করে নিন। এবার ভালো করে পরিষ্কার করা আস্ত মুরগিতে মাখিয়ে মেরিনেট করে রাখুন ২ ঘণ্টা।

চুলায় চিকেন গ্রিল করতে চাইলে মুরগির চারটি লেগ পিস নিয়ে সবগুলো মশলা মিশিয়ে মেরিনেট করে রাখুন ২ ঘণ্টা।

মেরিনেট করার পর ১৮০ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রায় প্রি-হিট করে রাখা ওভেনে গ্রিলড করুন ৪০ মিনিট। অন্যদিকে চুলায় করতে চাইলে, একটি প্যানে সামান্য তেল নিয়ে মেরিনেট করা মাংসের পিসগুলো তেলের উপর ছেড়ে দিন।

হালকা আঁচে এপিঠ-ওপিঠ ভালো করে ভেজে নিতে হবে লালচে করে। তৈরি হয়ে গেলে গ্রিলড চিকেন। সালাদ বা চাটনির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

রোটেসারি চিকেন ডে

জানেন কি, আজ গ্রিল চিকেন খাওয়া দিন। ওয়ার্ল্ড রোটেসারি চিকেন ডে আজ। রোটেসারি হলো আস্ত মুরগি রান্নার অন্যতম একটি আধুনিক প্রযুক্তি। যে যন্ত্রের সাহায্যে গ্রিল চিকেন তৈরি করা হয় বিভিন্ন হোটেল বা রেস্টুরেন্টে; সেটিই আসলে রোটেসারি মেশিন হিসেবে পরিচিত।

১৯৩০ সালের দিকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম আস্ত মুরগিকে একটি শিকের মধ্যে ঢুকিয়ে ধীরে ধীরে পুড়িয়ে চিকেন গ্রিল তৈরি করা হত। তখন সেখাকার মানুষের কাছে এই খাবার জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। পুরো যুক্তরাষ্ট্রে ৬০০ মিলিয়ন চিকেন গ্রিল বিক্রি হয়েছিল। তার মধ্যে কস্টকো নামক একটি আউটলেটে বিক্রি হয়েছিল ৭৫ বিলিয়ন চিকেন গ্রিল। ভাবুন একবার! এরপর থেকে এখনও চিকেন গ্রিলের কদর কমেনি।