নওগাঁয় পরকীয়ার জেরে যুবককে খুনের অভিযোগ

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ নওগাঁর পত্নীতলায় পরকীয়া প্রেমের সম্পর্কের জেরেধরে মারপিটের ঘটনায় মিলন চন্দ্র সরকার (৪২) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত মিলনের ১০ বিঘা জমি পাশের বালুঘা গ্রামের আদিবাসী কৃষক খিতিশ ও বুদু বর্গা চাষ করতো এই সুবাধে মিলন তাদের বাড়িতে যাওয়া আসা করতো, মিলন প্রতিনিয়ত সন্ধার পর যেত এবং এশার আযানের সময় বাসায় ফিরে আসতো।
আবার কখনো কখনো রাতে খিতিশের বাড়িতে থেকে যেত, সেখানে নেশাও করত ( চোলাই মদ বা তালের রস)। এতে প্রতিবেশীরা সন্দেহ করতো যে খিতিশের স্ত্রী লিলি মার্ডির সাথে মিলনের অনৈতিক সম্পর্ক আছে। তাই তারা মিলনকে ওই বাড়িতে যেতে নিষেধ করেন ।
নিষেধের পরও গত শনিবার ২৯ মে সন্ধ্যায় আবার মিলন ঐ বাড়িতে যায় প্রতিবেশীরা তাকে চলে যেতে বললে কথাকাটা কথাটির এক পর্যায়ে খিতিশের প্রতিবেশিরা নিহত  মিলনকে দেশীয় অস্ত্র (লাঠিসোটা ও বটি) দিয়ে আঘাত করলে মিলন মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে এলাকায় এক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে তার বাড়ীতে পৌছে দেন এবং মিলনের স্ত্রীকে জানান যে, মিলন এ্যাক্সিডেন্ট করেছে।
পরের দিন মিলনকে পরিবারের লোকজন নওগাঁ ইসলামী ক্লিনিকে চিকিৎসা করিয়ে বাড়িতে নিয়ে আসার পর রবিবার (৩০ মে) রাতে মিলনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে স্বজনরা তাকে পত্নীতলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার ভোর ৫টায় তার মৃত্যু হয়।
এঘটনার বিষয়ে পত্নীতলা থানার ওসি (তদন্ত) হাবিবুর রহমান বলেন, থানায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে এজাহার দাখিল করা হয়েছে এবং ইতি মধ্যেই ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে, পামাপাশি মামলার প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছে মিলন ও লিলির মাঝে কোন পরকিয়া সম্পর্ক থাকতেও পারে তবে তদন্তের মাধ্যমে আসল রহস্য জানা যাবে বলেও তিনি জানান।