মোবাইলে সময় কাটানোয় বকা, এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ফাতেমা আক্তার (১৭) নামের এক এসএসসি শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পরিবারের অভিযোগ। ফাতেমা আক্তার তেজগাঁও আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী ছিল।

শনিবার (২৯ মে) দুপুর ১২টার দিকে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকার বেগুন বাড়ির একটি বাসায় এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুপুর সোয়া ১টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা আবদুস সালাম বলেন, ‘আমার মেয়ে ঠিকমতো পড়াশোনা না করে সবসময় মোবাইল নিয়ে পড়ে থাকতো। এ কারণে বকাবকি করলে অভিমানে নিজের রুমে গিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। অনেক ডাকাপাকির পর দরজা না খোলায় জানালার ফাঁকা দিয়ে দেখতে পাই ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ঝুলে আছে। পরে দরজা ভেঙ্গে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাদের গ্রামের বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায়। তিন সন্তানের মধ্যে ফাতেমা সবার ছোট ছিল। বর্তমানে পরিবারের সঙ্গে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল বেগুনবাড়ি এলাকায় একটি বাড়িতে থাকতো সে।’

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় অবগত করা হয়েছে