বাসের সুপারভাইজারকে মারপিটের ঘটনায় নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়ক দু ঘন্টা অবরোধ 

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃনওগাঁয় ভাড়া নিয়ে বিবাদের জেরধরে যাত্রী কর্তৃক যাত্রীবাহী এক বাসের সুপারভাইজারকে মারপিট করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারপিটকারী যাত্রী ও তার সহযোগীদের আটক পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবীতে ২ঘন্টা নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়ক ও নওগাঁ-মহাদেবপুর সড়ক বাসদিয়ে বেরিকেট সৃষ্টি করার মাধ্যমে অবরোধ করে রাখেন উত্তেজিত বাস শ্রমিকরা। অবরোধ করার ফলে, নওগাঁর নওহাটামোড় বাজারে ত্রিমুখি সড়কে শতশত যানবাহন আটকে পরার কারনে হাজারো জন সাধারনকে ও বাসযাত্রী চরম দূর্ভোগের শিকার হতে হয়। ঘটনার সংবাদ পাওয়ার পর প্রথমে নওহাটামোড় পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এস আই জিয়াউর রহমান জিয়া পুলিশ ফোর্স সহ ঘটনাস্থলে পৌছে উত্তেজিত শ্রমিকদের শান্ত করলেও অবরোধ না তুলেনিয়ে শ্রমিকরা মারপিটে জড়ীতদের আগে আটক করার দাবি জানান। এরিমধ্যেই খবর পেয়ে ও উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের দিকনির্দেশনায় মহাদেবপুর থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ ও নওগাঁ সদর মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে জড়ীতদের যতদ্রুত সম্ভব আটক পূর্বক আইনের আওতায় আনা হবে বলে উত্তেজিত বাস শ্রমিক সহ শ্রমিক নের্তৃবৃন্দকে জানিয়ে জন দূর্ভোগ থেকে সাধারন মানুষ ( যাত্রীদের) দূর্ভোগ লাঘবে অবরোধ তুলে নেওয়া জন্য বলে উত্তিজত শ্রমিকদের শান্ত হওয়ার পরামর্শ দিয়ে জেলা মোটর শ্রমিক নের্তৃবৃন্দ এর সহযোগীতায় শ্রমিকদের শান্ত করার মাধ্যমে অবরোধ ( বাসের বেরিকেট) তুলে নেওয়ার পরই সড়কে যান বাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।
স্থানিয় ও শ্রমিক সুত্রে জানাগেছে, বৃহস্পতিবার রাজশাহী থেকে নওগাঁ গামী হানিফা পরিববন নামে একটি যাত্রীবাহী বাসে নওগাঁর মান্দা উপজেলার ফেরিঘাট নামক স্থান থেকে নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার ত্রি-মুখি  নওহাটা মোড়ে বাজারে আসার জন্য দু’জন যাত্রী ওঠেন। পথে ঐ বাসের সুপারভাইজার শফিকুর ইসলাম খোকা (৪২) তাদের কাছে ভাড়ানিতে গেলে ঐ যাত্রীদয় করোনা কালিন বাড়তী ভারা দিতে রাজি না হয়ে সুপারভাইজার এর সাথে দন্দে লিপ্ত হয়ে এক পর্যায়ে মুঠোফোনে নওহাটামোড়ে থাকা তার ভাই অটো বাইক চলককে ঘটনাটি জানালে যাত্রীর ভাই ও কয়েকজন সহযোগী ( অটো বাইক চালক) পূর্ব থেকেই নওহাটামোড় বাস স্টান্ডে অবস্থান করেন। দুপুর ২ টা ১৬ মিনিটে হানিফা পরিবহন ঢাকা মেট্রো ব ১৪-০৭০২ নম্বর বাসটি নওহাটামোড়ে পৌছালে এসময় ঐ বাসের সুপার ভাইজারকে মারপিট করে জখম করার এক পর্যায়ে পালিয়ে যান। এঘটনায় শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে মারপিটকারী অভিযুক্ত যাত্রী সহ জড়ীত অটো বাইক চালকদের আটক ও বিচারের দাবিতে সাথে সাথে বাসদিয়ে বেরিকেট ( সড়ক অবরোধ করেন)। ফলে ত্রি-মুখি সড়কে শতশত যানবাহন আটকে পরে ও হাজার হাজার যাত্রী সাধারন চরম দূর্ভোগের মধ্যে পরলে ঘটনার খবর পেয়ে নওহাটামোড় ফাঁড়ি ও মহাদেবপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে প্রাথমিকভাবে উত্তেজিত শ্রমিকদের শান্ত করলেও সড়ক থেকে বাসের বেরিকেট না তুলে নিয়ে শ্রমিকরা মারপিটকারীদের আটক সহ নওহাটামোড় বাজারের উপর থেকে অটো বাইক স্টান্ড সরিয়ে নেওয়া দাবিতে অনড় থেকেন। এক পর্যায়ে মহাদেবপুর থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ ও নওগাঁ সদর মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলাম জুয়েল ঘটনাস্থল নওহাটামোড় বাজারে পৌছে বাস শ্রমিক নের্তৃবৃন্দ সহ সাধারন শ্রমিকদের সাথে কথা বলেন এবং মারপিটে জড়ীতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের আস্বাস দিলে বিকাল ৪ টারদিকে বাস শ্রমিকরা সড়ক থেকে বাসের বেরিকেট তুলে নেওয়ার পর সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।
এব্যাপারে মহাদেবপুর থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ জানান, ভাড়া নিয়ে বিবাদকে কেন্দ্র করে মারপিটের শিকার হোন একজন সুপারভাইজার এঘটনায় শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে সড়ক অবরোধ করলে খবর পেয়ে সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পৌছে প্রথমে উত্তেজিত শ্রমিকদের বুঝিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয় এবং লিখিত অভিযোগ দিলে মারপিটকারী অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানালে সড়ক থেকে শ্রমিকরা বেরিকেট তুলে নেওয়ার পর থেকে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।