ইয়াসের পর আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’

পুরনো ভাণ্ডার শেষ, শুরু হয়েছে নতুন তালিকা ধরে ঝড়ের নামকরণ। দেখতে দেখতে এ তালিকার পাঁচটি ঝড় বয়েও গেছে। এখন ভারত-বাংলাদেশ উপকূলে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। কিন্তু এরপর? পরের ঝড়ের নাম কী, নামটি কারা রেখেছে তা নিয়ে আগ্রহ রয়েছে অনেকের মনে। জেনে নেওয়া যাক এ সম্পর্কে।

২০০৪ থেকে ২০২০-এই ১৬ বছরে আটটি দেশ মোট ৬৪টি ঘূর্ণিঝড়ের নাম রেখেছিল। সেই তালিকার সব নামের ব্যবহার শেষ। গত বছর নতুন পাঁচটি দেশকে নিয়ে প্রত্যেক দেশ থেকে ১৩টি নাম নিয়ে মোট ১৬৯টি নামের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। আগামী বছরগুলোতে সেখান থেকেই নামকরণ চলবে পরবর্তী ঝড়গুলোর।

এ অঞ্চলের ঝড়ের নামকরণ করা ১৩টি দেশ হচ্ছে বাংলাদেশ, ভারত, ইরান, মালদ্বীপ, মিয়ানমার, ওমান, পাকিস্তান, কাতার, সৌদি আরব, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইয়েমেন। এই তালিকায় পাঁচটি নতুন দেশ হলো ইরান, কাতার, সৌদি আরব, আমিরাত ও ইয়েমেন। এই ১৩টি দেশের দেওয়া নামগুলোই ঘুরেফিরে ব্যবহার করা হবে আগামী ঝড়গুলোর ক্ষেত্রে।

এসব দেশের প্রস্তাবিত ঝড়ের নামের তালিকায় প্রথম সারিতে রয়েছে যথাক্রমে নিসর্গ, গতি, নিভার, বুরেভি, তাওকতে, ইয়াস, গুলাব, শাহীন, জওয়াদ, অশনি, সিতারং, মানদউস এবং মোখা।

এর মধ্যে নিসর্গ নামটি ছিল বাংলাদেশের দেয়া। গতি ভারতের, নিভার ইরানের, বুরেভি মালদ্বীপের এবং তাওকতে মিয়ানমারের দেয়া নাম। ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের নাম রেখেছে ওমান।

 

সেই হিসাবে পরবর্তী ঝড়ের নাম হবে পাকিস্তানের দেয়া তালিকা থেকে। আর পাকিস্তানের তালিকার প্রথম নামটি হচ্ছে গুলাব।

নতুন ঘূর্ণিঝড়ের জন্য পাঠানো ১৬৯ নাম

বাংলাদেশ : নিসর্গ, বিপর্যয়, অর্ণব, উপকূল, বর্ষণ, রজনী, নিশীথ, ঊর্মি, মেঘলা, সমীরণ, প্রতিকূল, সরবর, মহানিশা।

ভারত : গতি, তেজ, মুরাসু, আগ, ভায়ুম, ঝড়, প্রবাহ, নীড়, প্রভানজান, ঘূর্ণি, আমবুদ, জালাদি, ভিগা।

ইরান : নিভার, হামুন, আগভান, সিপান্দ, বুরান, আনাহিতা, আজআর, পোয়ান, আরশাম, হেনজামি, সাভাস, তাহামতান, তুফান।

মালদ্বীপ : বুরেভি, মিদহিল, কানি, ওডি, কিনাউ, এন্ধেরি, রিয়াউ, গুরুভা, কুবাংগি, হোরাংগু, থুনডি, ফানা।

মিয়ানমার : তাওকতে, মিগজায়ুম, নাগামান, কাজাথি, যাবাগজি, ইউয়ুম, মউইহু, কাউই, পিংকু, জিনগাউন, লিনইওনি, কাইকান, বাউপা।

ওমান : ইয়াস, রিমাল, সাইল, নাসিম, মুথন, সাদিম, দিমা, মানজর, রুকাম, ওয়াতাদ, আল-জারয, রাবাব, রাদ।

পাকিস্তান : গুলাব, আসনা, সাহাব, আফসান, মানাহিল, সুজানা, পারওয়ায, জান্নাতা, সারসার, বাদবান, সাররাব, গুলনার, ওয়াসেক।

কাতার : শাহীন, ডানা, লুলু, মউজ, সুহাইল, সাদাফ, রিম, রায়হান, আনবার, ওউদ, বাহার, সাফ, ফানার।

সৌদি আরব : জাওয়াদ, ফেনগাল, ঘাজির, আসিফ, সিদরাহ, হারিদ, ফাইদ, কাসির, নাখিল, হাবুব, বারেক, আরিম, ওয়াবিল।

শ্রীলঙ্কা : অশনি, শক্তি, জিগুম, গগনা, ভারামভা, গাজানা, নিবা, নিনাদা, ভিদুলি, ওঝা, সালিথা, রিভি, রুদু।

থাইল্যান্ড : সিতারাং, মনথা, থিয়ানুট, বুলান, ফুতালা, আইয়ারা, সামিংগ, কারইসন, মাতচা, মাহিংসা, ফারিওয়া, আসুরি, থারা।

আরব আমিরাত : মানদউস, সেনইয়ার, আফুর, নাহ-হাম, কুফফাল, দামান, দিম, গারগুর, খুব, দিগল, আথমাদ, বুম, সাফার।

ইয়েমেন : মোখা, দিতওয়াহ, দিকসাম, সিরা, বাকহুর, ঘাওয়েযি, হাউফ, বালহাফ, ব্রম, শুকরা, ফারতাক, দারসাহ, সামহাহ।