আজিমপুরে চিরনিদ্রায় শায়িত কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী

রাজধানীর আজিমপুর কবরস্থানে চির নিদ্রায় শায়িত হলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী। মঙ্গলবার (২৫ মে) বেলা ১১টার পর তার দাফন কার্যক্রম শুরু হয়।

এর আগে বুধবার সকাল ৯টা ৫০ মিনিটের দিকে হাবীবুল্লাহ সিরাজীর মরদেহ বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে আনা হয়। সেখানে সকাল ১০টায় প্রথম জানাজা শেষে কবির পরিবারের সদস্যরাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ তার কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজীর কফিনে বাংলা একাডেমির পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন একাডেমির সচিব ও ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক এ এইচ এম লোকমান।

আওয়ামী লীগের পক্ষে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল ও দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান। এছাড়া বাংলাদেশ রাইর্টার্স ক্লাব, বাংলাদেশ ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠন শ্রদ্ধা জানায়।

বাংলা একাডেমিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বেলা পৌনে ১১টার দিকে হাবীবুল্লাহ সিরাজীর মরদেহ আজিমপুর কবরস্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে দ্বিতীয় জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয়।

আজিমপুর কবরস্থানে তার জানাজায় অংশ নেন- কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক, কবি মুহম্মদ নুরুল হুদা, জাতীয় কবিতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তারিক সুজাত, ছড়াকার আনজীর লিটন, বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সভাপতি ফরিদ আহমেদ, প্রকাশক আলমগীর সিকদার লোটন প্রমুখ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নাট্যজন মামুনুর রশিদ, প্রকাশক শ্যামল পাল প্রমুখ।

কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী সোমবার (২৪ মে) রাত ১১টায় বাংলাদেশ স্পেশালাইজড  হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মারা যান। এর আগে, গত ২৫ এপ্রিল পাকস্থলীর সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন হাবীবুল্লাহ সিরাজী। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ভেন্টিলেশনে নেয়া হয় এ কবিকে। তিনি কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন।