মিয়ানমারে পুলিশ ফাঁড়ি দখল বিদ্রোহীদের, নিহত ১৩

মিয়ানমারের বিতর্কিত সামরিক অভ্যুত্থানের বিরোধিতাকারী একটি বিদ্রোহী গোষ্ঠীর যোদ্ধারা দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় শহর মবাইয়ের পুলিশ ফাঁড়ি দখল করেছে। রবিবার (২৩ মে) বিদ্রোহীদের হামলায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অন্তত ১৩ সদস্য নিহত ও চারজনকে বন্দি করা হয়েছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে খবরটি জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিদ্রোহীদের অভিযানে নিহত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের মরদেহ দেখা গেছে। চার সদস্যকে বন্দি করা অবস্থায় দেখে গেছে ভিডিয়োতে। তাদের চোখ ও হাত বাঁধা এবং মুখে সার্জিক্যাল মাস্ক রয়েছে।

ভিডিয়োতে আরও দেখা গেছে, পুলিশ ফাঁড়ির প্রবেশের মুখে একটি গাড়িতে আগুন জ্বলা অবস্থায় বিদ্রোহীরা সেখানে প্রবেশ করছে।

এই বিষয়ে রয়টার্সের পক্ষ থেকে জান্তা সরকারের মুখপাত্র কিংবা স্বতন্ত্রভাবে বিদ্রোহীদের দাবির সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম ইরাবতী স্থানীয় পিপল’স ডিফেন্স ফোর্সের এক যোদ্ধার বরাতে জানায়, পুলিশ ফাঁড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। দুই বেসামরিক আহত হয়েছেন।

স্থানীয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ১৫ সদস্য নিহত হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

রাজধানী নেপিদো থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার পূর্বে মবাই শহর অবস্থিত। এখানে বেশ কয়েকটি জাতিগত সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী সক্রিয় রয়েছে।

এ দিকে রবিবার ভোরে চীন সীমান্তের কাছে বন্দুকযুদ্ধের খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া শনিবার সশস্ত্র জাতিগোষ্ঠীর বিদ্রোহীরা মিয়ানমারের অপর প্রান্তে হামলা চালায়।