ভূমি সংক্রান্ত ফি দেয়া যাবে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ভূমি উন্নয়ন কর, মিউটেশন ফি, খতিয়ান ফিসহ যাবতীয় ফি পরিশোধ করা যাবে। এজন্য একটি ব্যাংক এবং তিনটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবা দেয়া প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করেছে সরকার।

সোমবার (২৪ মে) সচিবালয়ে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড (ইউসিবিএল), মোবাইলে আর্থিক সেবাদাতা (এমএফএস) প্রতিষ্ঠান নগদ, বিকাশ ও উপায়-এর সঙ্গে চুক্তি করেছে ভূমি মন্ত্রণালয়। এ সময় ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী এবং ভূমি সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর পক্ষে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং ভূমি মন্ত্রণালয়ের পক্ষে অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার দাস চুক্তিতে সই করেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ভূমি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর, মিউটেশন ফি, খতিয়ান ফিসহ যাবতীয় ফি পরিশোধের জন্য ভূমি মন্ত্রণালয় একটি অ্যাপ্লিকেশন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছে। এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে নাগরিকরা এখন ঘরে বসেই অনলাইনে সকল ফি প্রদান করতে পারবেন। অনলাইনে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সব সেবা স্থাপনের জন্য ভূমিসেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে ভূমি মন্ত্রণালয়, পেমেন্ট গেটওয়ে চ্যানেল সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান উপায়, নগদ ও বিকাশ ও ব্যাংকিং সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ইউসিবিএলের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হচ্ছে।

এতে ভূমিসেবা প্ল্যাটফর্ম, পেমেন্ট গেটওয়ে চ্যানেল ও ব্যাংকের মধ্যে সমন্বয় হবে। এই চুক্তির আওতায ইউসিবিএল হবে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়কারী তথা সেটেলমেন্ট ব্যাংক। সাধারণ মানুষ উপায়, নগদ, বিকাশ এবং অন্যান্য পেমেন্ট গেটওয়ে চ্যানেলের মাধ্যমে তাদের জমির বিভিন্ন ফি প্রদান করতে পারবেন।

ফি পরিশোধের পর ভূমিসেবা গ্রহীতারা কিউআর কোড সমৃদ্ধ রশিদ পাবেন এবং সেবাটি গ্রহণ করতে পারবেন। উপায়, বিকাশ এবং নগদ ইত্যাদির মাধ্যমে আদায়কৃত অর্থ তাৎক্ষণিকভাবে সেটেলমেন্ট ব্যাংকের মাধ্যমে ভূমি মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট হয়ে ই-চালানের মাধ্যমে সরকারি কোষাগারে স্থানান্তরিত হবে বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়।