বাসায় সুন্দরী নারী এনে চালানো হতো অসামাজিক কর্যকলাপ, পুলিশের অভিযানে ১৩ আটক

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ
দুটি বাসায় বিভিন্ন জেলা থেকে সুন্দরী যুবতী ও গৃহবধূদের টাকার লোভ দেখিয়ে এনে চালানো হতো অসামাজিক কর্যকলাপ, অবশেষে পুলিশের অভিযানে নারী-পুরুষ ১৩ জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। শনিবার দিনগত রাতে ঐ দুটি বাসাতে অভিযান পরিচালনা করে তাদের আটক করেন থানা পুলিশ।
জয়পুরহাট জেলা শহরের নতুনহাট এলাকায় দুই বাসাতে থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে অসামাজিক কাজে জড়িত থাকার অপরাধে নারীসহ ১৩ জনকে আটক করেন।
আটককৃতরা হলেন, জয়পুরহাট শহরের নতুনহাট শেখপাড়া মহল্লার খোকন মিয়ার স্ত্রী হনুফা খাতুন (৩৫), মৃত আবু তাহেরের স্ত্রী মালেকা খাতুন (৪৮) মন্টু মিয়ার ছেলে আসলাম হোসেন (৩২), সুখনগর মহল্লার আব্দুর রশীদের মেয়ে টুম্পা খাতুন (২২) নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার গোয়াল ভিটা গ্রামের মৃত আজিজুল হকের ছেলে আবু মুসা
(২০), আদাইপুর গ্রামের শ্রী কমল এর স্ত্রী রীতা রানী (৩৮) আক্কেলপুর উপজেলার শান্তনগর মহল্লার আব্দুল মালেকের স্ত্রী বৈশাখী খাতুন (২২), বাবু আক্তারের স্ত্রী শিল্পী খাতুন (২৬) কালাই উপজেলার নান্দাইল গ্রামের মৃত বদিউজ্জামানের ছেলে আব্রাহিম (৪৫), তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে মামুন (৩৫) শেখপাড়া মহল্লার শাহাজানের স্ত্রী রোজি (৩০) ক্ষেতলাল উপজেলার কুসুমপুর গ্রামের মোকলেছের মেয়ে মোমেনা খাতুন (৩২) ও কালাই উপজেলার উদয়পুর গ্রামের রেজাউল করিমের স্ত্রী রোজিনা (২৬)।
আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে
জয়পুরহাট সদর থানার ওসি আলমগীর জাহান জানান, আটককৃত রোজি ও মালেকা টাকার লোভে তাদের নিজ বাসায় (বাড়িতে) জেলার ও জেলার বাইরে থেকে সুন্দরী নারীদের নিয়ে এসে টাকার লোভ দেখিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপ ও মাদকের ব্যবসা চালিয়ে আসছিলেন। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। ইতি মধ্যেই আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।