সরাইলে সরকারি রাস্তা ও খাল দখল , দুর্ভোগে ৫ হাজার পরিবার

ব্রাাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের কানিউচ্ছ গ্রামের শত বছরের পুরনো  সরকারি রাস্তা ও খাল দখল করে মাটি ভরাট করছে স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি। চলছে ঘরনির্মানেরও প্রস্ততি।  এতে এলাকাবাসির  যাতায়াতের জন্য ব্যবহৃত রাস্তাটি বন্ধ হয়ে গেছে। চরম দুর্ভোগে পড়েছে এলাকার অন্তত প্রায় ৫ হাজার পরিবার । রাস্তাটি নকশামূলে  প্রায় ৫২ফুট প্রস’ থাকলেও বর্তমানে ১০-১৫ফুট হবে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
কানিউচ্ছ এলাকার একাদিক কৃষক জানান, আগে রাস্তা দিয়ে আমরা রিক্সা নিয়ে বাড়ি যেতে পারতাম, আর এখন অল্প বৃষ্টিতেই আমরা চলতে পারছিনা। উপরের মাটি বেঙ্গে রাস্তায় পরে রাস্তা নষ্ট হচ্ছে। আর যে খালটি দিয়ে আমরা নৌকা করে বাজার সদায় করতে আসতাম। সেই খালটিও মাটি ভরাট করে বাড়ি বানিয়ে ফেলছে। এই খালটি আমাদের সারা গ্রামের পানি নিস্কাশনের এক মাত্র ব্যবস্থা। এটি বন্ধ হওয়ার ফলে অল্প বৃষ্টিতেই পুরো গ্রাম পানিতে তলিয়ে যাবে। মাটি ভরাট করার সময় তাদেরকে আমরা বার বার বাধা দিলেও তারা আমাদের কথায় কোন পাত্তাই দেইনি। মাটি ভরাটের সময় এলকার সালীশ কারকরা বসেছিলেন। ঐসময় তারা বলছিল মাটি সরিয়ে ফেলবে। এখন কেন মাটি সরায়না তারাই বলতে পারবে।

বর্তমানে রাস্তাটি দিয়ে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। পায়ে হেঁটে চলাচল করাও দুষ্কর হয়ে পড়েছে। বৃষ্টি হলেই রাস্তাটি দিয়ে চলাচল বন্ধ।  এতে দুর্ভোগে পড়েছে  এখানকার প্রায় ৫হাজার পরিবার । অবিলম্বে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করে সড়কটি উন্মুক্ত করতে স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি দাবি জানিয়েছেন গ্রামবাসী।
সরাইল উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ফারজানা পিয়াংকা মুঠোফোনে বলেন,  আপনার মাধ্যমে আমি এখন জানলাম। যদি তথ্য সঠিক হয়ে থাকে সরেজমিনে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।