নওগাঁয় সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে মোমবাতি প্রজ্বালন

 শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ
‘রোজিনা হোক শক্তি, রোজিনা হোক আলো’ স্লোগানে দৈনিক- প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক  (সাংবাদিক) রোজিনা ইসলামের মুক্তি সহ মুক্ত গণমাধ্যমের দাবিতে নওগাঁয় মোমবাতি প্রজ্বালন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। ২২ মে, শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় নওগাঁ শহরের প্যারিমোহন সাধারণ গ্রন্থাগার প্রাঙ্গণে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।
প্রথম আলো বন্ধুসভা নওগাঁ ও স্থানীয় সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন একুশে পরিষদ নওগাঁর আয়োজনে কর্মসূচি পালন করা হয়। মোমবাতি প্রজ্বালন কর্মসূচিতে বন্ধুসভা ও একুশে পরিষদের সদস্যরা ছাড়াও নওগাঁ জেলা পর্যায়ের গণমাধ্যমকর্মী, বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীরা অংশ নেন।
মোমবাতি প্রজ্বালন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে বক্তব্য দেন একুশে পরিষদ নওগাঁর উপদেষ্টা ও সিনিয়র সাংবাদিক কায়েস উদ্দিন ও বিন আলী পিন্টু, একুশে পরিষদ এর সভাপতি ডি এম আবদুল বারী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আল মেহমুদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাইস পারভীন, তেতুলিয়া বিএমসি কলেজের অধ্যক্ষ সিদ্দিকুর রহমান, নওগাঁ বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মল্লিক, সহসভাপতি বিষ্ণু কুমার দেবনাথ প্রমুখ।
রোজিনার মুক্তির দাবিতে নওগাঁয় মোমবাতি প্রজ্বালন
বক্তারা বলেন, প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলাম জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে খ্যাতিসম্পন্ন একজন সাংবাদিক।
পেশাগত জীবনে সাহসের সঙ্গে তিনি দুর্নীতি, অনিয়ম ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের খবর তুলে ধরে আসছেন। সাংবাদিক রোজিনা কেবল একজন ব্যক্তি নন, আজ তিনি পুরো জাতির, গণমাধ্যমের প্রতীক হিসেবে দাঁড়িয়েছেন। ভঙ্গুর গণমাধ্যম পরিস্থিতির কারনে রোজিনার এই ঘটনা সাংবাদিকদের মধ্যে ঐক্য সৃষ্টি করেছে। সাহসী সাংবাদিক রোজিনার শক্তিতে দেশের গণমাধ্যমকর্মীরাও সাহসী হয়ে উঠেছেন। তাঁরা অন্যায়ের প্রতিবাদ করছেন।
এসময় বক্তারা তাদের বক্তব্যে, দ্রুত রোজিনার মুক্তির দাবি জানান।