সর্বশেষ :

নরসিংদী সদর উপজেলার নজরপুর ইউনিয়নের নজরপুর গ্রাম ভাঙ্গনের মুখে

নিজস্ব প্রতিনিধি :- নরসিংদী সদর উপজেলা নজরপুর ইউনিয়নের নজরপুর গ্রামে মেঘনা নদীর ভাঙ্গনে বিলীন হতে চলেছে কৃষকের ফসলি জমি। ২০ মে ২০২১ খ্রিঃ বৃহস্পতিবার উক্ত গ্রামের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মেঘনা নদীর ভাঙ্গন এলাকায় গিয়ে সরজমিনে দেখা যায়, নজরপুরবাসীর একমাত্র ফসলি জমিগুলো নদীর তীব্র স্রোতে জমিরপাড় গুলো একের পর এক ভাঙ্গে নদীর বুকে আচঁড়ে পড়ছে। এতে করে গ্রামবাসী হারাচ্ছে তাদের একমাত্র ফসলি জমি। স্থানীয় গ্রামবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, মেঘনা নদীর পাশে হওয়ায় জমিগুলো খুবই উর্বর। এতে করে কৃষকরা তাদের বাপ-দাদার এসব জমিগুলোতে অল্প খরচে চাষাবাদ করে দরিদ্র কৃষকরা তাদের সারাবছরের খাদ্য শস্য সংগ্রহ করে থাকে। কিন্তু তাতে বাঁধসাধে মেঘনার কড়াল গ্রাস। মেঘনার কড়াল গ্রাসে দিনের পর দিন একে একে দরিদ্র কৃষকদের ফসিল জমিগুলো হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পথে বসতে হচ্ছে। নদী ভাঙ্গনে জমি হারানো স্থানীয় কৃষক মোছলেম মিয়া বলেন, আমার বাপ-দাদার দুই কানি জমি ছিল। নদী ভাঙ্গনে প্রায় সবটুকু জমি হারিয়ে আমি এখন বাজারে কুলির কাজ করে সংসার চালাতে হয়। কিন্তু ৫ বছর আগে আমি এ জমিতে চাষাবাদ করে সুখে শান্তিতে সংসার চালিয়ে ছিলাম। এভাবে যদি ভাঙ্গনে থাকে তবে আমার শেষ সম্বল বাড়ীটুকু হারিয়ে ছেলে-মেয়ে নিয়ে রাস্তা রাস্তায় ভিক্ষা করতে হবে। এ নদী ভাঙ্গনরোধে স্থানীয় গ্রামাবাসীরা একত্রিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরসিংদী সদর আসন এর সংসদ সদস্য মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম (হিরু) বীর প্রতীক এর নিকট আকুল আবেদন করেন। তাদের বিশ্বাস নরসিংদী সদরের উন্নয়নের রুপকার নজরুল ইসলাম (হিরু) এমপি একটু নজর দিয়ে মেঘনার ভাঙ্গন থেকে আমাদের ফসলি জমিগুলো রক্ষা করা সম্ভব হবে বলে গ্রামবাসী মনে করেন।