বোমা বানাতে গিয়ে ইউপি সদস্য নিহত

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় বোমা বানানো সময় বিস্ফোরিত হয়ে নাজমুল আলম লিটন নামে এক ইউপি সদস্য নিহত হয়েছে।

সোমবার (১০ মে) দিনগত রাত দুইটার দিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহত লিটন উপজেলার হাজিরবাগ ইউনিয়নের পাঁচপোতা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল ওহাবের ছেলে ও বর্তমানে পাঁচপোতা ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।

যশোর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদ্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার) তৌহিদুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, বাড়ির পাশে বাগানে বসে বোমা বানানোর সময় বিস্ফোরণে লিটনের দুই হাত ও শরীর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরিবারের লোকজন তাকে প্রথমে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকায় রেফার্ড করেন চিকিৎসকরা। পরে সেখান থেকে ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, সোমবার দুপুর ১টার দিকে পাঁচপোতা গ্রামের মৃত্যু রফিক মেম্বারের বাড়িতে লিটন মেম্বার সন্ত্রাসী বোমা বানাচ্ছিলেন। এ সময় অসাবধানতাবশত একটি বোমা বিস্ফোরিত হলে তিনি গুরুতর জখম হয়। এ সময় তার সঙ্গে থাকা লোকজন তাকে উদ্ধার করে গোপন স্থানে নিয়ে চিকিৎসা দিচ্ছিলেন। কিন্তু তার অবস্থার অবনতি হয় সন্ধ্যার পর অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার উদ্দেশ্যে নেওয়া হচ্ছিল। পথিমধ্যে মানিকগঞ্জ পৌঁছালে রাত আড়াইটার দিকে গাড়িতেই তার মৃত্যু হয়। লিটন মেম্বার ঝিকরগাছা পাঁচপোতা গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা ওমর আলী হত্যাকাণ্ডের অন্যতম আসামি ছিলেন।