স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সঙ্গে আমরা কাজ করছি : পলক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সঙ্গে আমরা কাজ করছি। শ্রমজীবী মানুষ করোনার কারণে সংকটে রয়েছে। বিশ্বের বড় বড় দেশের অর্থনীতিতে স্থবিরতা নেমে এসেছে। ৩২ লাখ মানুষ মারা গেছে। সেই মুহূর্তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্বল্প আয়ের মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। সিংড়ার ৩১ হাজার পরিবারকে ভিজিএফের সাহায্য দেওয়া হবে।

রবিবার (৯ মে) সকাল ১১টায় সিংড়া পৌরসভা চত্বরে পৌর এলাকার ভিজিএফের আওতায় সুবিধাভোগীদের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ইদ শুভেচ্ছা বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি ১২টি ইউনিয়নের ছয় হাজার পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা হিসেবে ৫০০ টাকা বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে প্রতিমন্ত্রী বলেন, গরিবের হক কেউ নষ্ট করবেন না। কোনো অনিয়ম মেনে নেওয়া হবে না। কেউ দুর্নীতি করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা আমরা সততা ও স্বচ্ছতার সঙ্গে পৌঁছে দিচ্ছি। ডিজিটাল কার্ড করে বিতরণ করা হচ্ছে। যাতে কারও কার্ডে কেউ টাকা উত্তোলন না করতে পারে।

তিনি আরও বলেন, বিগত দিনে সিংড়ার প্রায় ৭০ হাজার মানুষকে মানবিক সহায়তা পৌঁছে দিয়েছি। এক লাখ মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে, মসজিদে মসজিদে সাবান সরবরাহ করা হয়েছে। কৃষকদের পাশে ছিল সিংড়া উপজেলা ছাত্রলীগ, যুবলীগ। বিগত ১৩ বছরে আপনাদের পাশে ছিলাম, ভবিষ্যতেও থাকব। করোনা থেকে মুক্তির জন্য সবার কাছে দোয়া কামনা করেন তিনি। তিনি প্রয়োজনে তাঁকে ফোন করার অনুরোধ জানান।

পলক বলেন, জনাব সজিব ওয়াজেদ জয় ২০১৮ সালের ১৩ এপ্রিল জাতীয় তথ্য সেবা চালু করেন। ২ কোটি ৮১ হাজার মানুষ তথ্য সেবা পেয়েছে। মানুষ সুফল পাচ্ছে।

সিংড়া পৌরসভার মেয়র মো. জান্নাতুল ফেরদৌসের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম এম সামিরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ওহিদুর রহমান প্রমুখ।