সাত বছর পর মন্ত্রীর পদ মর্যাদা নিয়ে ফিরলেন জিয়াউদ্দিন

সাত বছর পর প্রধানমন্ত্রীর অ্যাম্বাসেডর-অ্যাট-লার্জ পদে ফিরলেন মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন। তবে এবার তিনি পেলেন মন্ত্রীর পদ মর্যাদা। রোববার তিনি নতুন দায়িত্বে যোগ দিয়েছেন বলে প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব এম এম ইমরুল কায়েস গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ জিয়াউদ্দিনকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

অবসরপ্রাপ্ত কূটনীতিক জিয়াউদ্দিন এর আগে ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল অবধি প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অ্যাম্বাসেডর-অ্যাট-লার্জ পদে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীকালে তিনি ২০২০ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সেখানে দায়িত্ব পালন শেষে তিনি আবার আগের পদে ফিরলেন।

৭৫ বছর বয়সী জিয়াউদ্দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী। ১৯৭৪ সালে পররাষ্ট্র ক্যাডারের কর্মকর্তা হিসেবে সরকারি চাকরিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। কর্মজীবনে তিনি লন্ডনে বাংলাদেশ হাই কমিশনে থার্ড ও সেকেন্ড সেক্রেটারি, নাইরোবিতে বাংলাদেশ হাই কমিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি, জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনে কাউন্সেলর এবং উপ মিশন প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মহাপরিচালকের দায়িত্বেও ছিলেন তিনি।

২০০০ সালে তিনি ইতালিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ পান। অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে আলবেনিয়া, বসনিয়া-হার্জগোভিনায় রাষ্ট্রদূতের দায়িত্বও পালন করেন তিনি। তিনি এফএও, ডব্লিউএফপি এবং আইএফইডিতে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবেও কাজ করেন।