দক্ষিণ সুদানে বাংলাদেশিদের আইন মেনে চলার অনুরোধ

আদ্দিস আবাবায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নজরুল ইসলাম দক্ষিণ সুদানে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিকদের সেদেশের সব আইনকানুন এবং নিয়মাবলী মেনে চলার অনুরোধ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আদ্দিস আবাবায় নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত নজরুল ইসলাম এবং কাউন্সিলর সম্প্রতি দক্ষিণ সুদান ভ্রমণ করেন। সেখানে তারা দক্ষিণ সুদানে বসবাসকারী বাংলাদেশিদের সঙ্গে বেশ কিছু সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন। সফরকালে তারা বাংলাদেশিদের পরিচালিত বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেন। তারা সেখানে ব্যবসা সম্পর্কিত বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা সম্পর্কে আলোচনা করেন।

তারা দক্ষিণ সুদানে বসবাসরত বাংলাদেশিদের জন্য বেশ কিছু কন্স্যুলার কার্যক্রম পরিচালনা করেন। তবে দক্ষিণ সুদান যেহেতু স্থলবেষ্টিত একটি দেশ এবং সেখানকার যোগাযোগ ব্যবস্থা খুবই অনুন্নত ও অনিয়মিত, সেহেতু বাংলাদেশিরা নিয়মিতভাবে এরকম কন্সুলার সফর পরিচালনার দাবি করেন।

সফরকালে বাংলাদেশিরা রাষ্ট্রদূতকে বিভিন্ন ব্যবসায়ী সম্ভাবনা সম্পর্কে অবহিত করেন। বিশেষ করে ঢাকা বিমানবন্দরে এবং বি এম ই টিতে বিভিন্ন ছাড়পত্র গ্রহণে দীর্ঘসূত্রতা এবং বিভিন্ন অসুবিধা বাংলাদেশিরা তুলে ধরেন।

রাষ্ট্রদূত দক্ষিণ সুদানে বসবাসরত বাংলাদেশিদের এসব সমস্যা সমাধানের বিষয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার আশ্বাস দেন।

তিনি সব বাংলাদেশিদের দক্ষিণ সুদানের সব আইনকানুন এবং নিয়মাবলী মেনে চলার জন্য অনুরোধ করেন যাতে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি সদা সমুন্নত থাকে।

রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশিদের সফলভাবে ব্যবসা পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় যেকোনো সহায়তার জন্য দক্ষিণ সুদান সরকারের সঙ্গে আলোচনার আশ্বাস দেন। রাষ্ট্রদূত মুজিব শতবর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে সরকার কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রমের বর্ণনা দেন।

সফরকালে দক্ষিণ সুদানে কর্মরত বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী কর্মকর্তাদের সঙ্গে রাষ্ট্রদূত সাক্ষাত করেন এবং শান্তিরক্ষা কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত হন। দক্ষিণ সুদানে কর্মরত সব বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের নিরলস প্রচেষ্টা ও সর্বোচ্চ ত্যাগের বিনিময়ে বিশ্ব শান্তিরক্ষায় অবদান রাখার মাধ্যমে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জল করার জন্য রাষ্ট্রদূত তাদের ভূয়সী প্রশংসা করেন। রাষ্ট্রদূত তাদের আদ্দিস আবাবা দূতাবাসের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দেন।