ঢাকা, রবিবার , ২৯শে মার্চ, ২০২০ ইং,
১৫ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হাসপাতালে হাজার হাজার বেড তৈরির নির্দেশ ট্রাম্পের

মার্চ ২৪, ২০২০ | আন্তর্জাতিক
Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোর হাসপাতালে হাজার হাজার জরুরি বেড তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ক্যালিফোর্নিয়াসহ করোনায় বেশি আক্রান্ত রাজ্যগুলোতে অতিরিক্ত চার হাজার বেড স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। রোববার এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা এখন যুদ্ধের মধ্যে আছি। আক্ষরিক অর্থে আমরা যুদ্ধেই আছি।’

এদিকে, করোনা প্রতিরোধে ট্রিলিয়ন ডলারের একটি অর্থনৈতিক প্যাকেজ মার্কিন কংগ্রেসে আটকে দিয়েছে ডেমোক্রেটিক দল। দলটির অভিযোগ, আমেরিকার কোটি কোটি মানুষের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হয়েছে রিপাবলিকানরা।

যুক্তরাষ্ট্রে রোববার পর্যন্ত ৫০ রাজ্যে ৩৫ হাজার ৭০ জনের মাঝে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত করা হয়েছে। মারা গেছেন ৪৫৮ জন। বন্ধ রাখা হয়েছে ব্যবসা-বাণিজ্যের বহু কেন্দ্র। যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ লকডাউন রয়েছে।

দেশটির প্রায় ১৭ কোটি মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রে জ্যামিতিক হারে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। ভাইরাসে আক্রান্তের তালিকায় তৃতীয় নম্বরে উঠে এসেছে দেশটি।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেশি নিউইয়র্ক, শিকাগো ও লস অ্যাঞ্জেলেসে। এ দুঃসময়ে দেশের হাসপাতালগুলোতে জরুরি বেড স্থাপনের ঘোষণা দিলেন ট্রাম্প। করোনা আক্রান্ত হটস্পট রাজ্যগুলোতে এসব জরুরি বেড তৈরি করা হবে।

এর আগে করোনার অর্থনৈতিক ক্ষতি মোকাবেলায় এক লাখ ৭০ হাজার কোটি ডলারের বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেন ট্রাম্প। এটি পাসের জন্য প্রয়োজন ছিল মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেট সদস্যদের অনুমোদন।

প্রস্তাবিত প্রণোদনায় বড় ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠানের মালিক এবং মধ্যবিত্তের জন্য বিপুল সহায়তার কথা থাকলেও- নিম্ন মধ্যবিত্ত এবং দরিদ্র শ্রেণির জন্য সহায়তা খুবই কম রাখা হয়েছে।

এ অবস্থায় ডেমোক্র্যাটরা রিপাবলিকানদের উত্থাপিত বিলটির বিপক্ষে অবস্থান নেন। তারা এ প্রস্তাবনার কাঠামোগত সংস্কার দাবি করেছেন। সিনেটে ৪৭-৪৭ ভোটে বিলটি বাতিল হয়।

এটি পাসের জন্য প্রয়োজন ছিল ৬০ সিনেট সদস্যের অনুমোদন। বিলটি পাসের মাধ্যমে মার্কিন শিল্প মালিক এবং ব্যবসাগুলোকে বিপুল পরিমাণ কর রেয়াত এবং বড় অঙ্কের স্বল্প সুদে ঋণ দেয়ার প্রস্তাব ছিল। একইসঙ্গে জনগণকে নগদ অর্থ সহায়তা হিসেবে ২৫ হাজার কোটি ডলার দেয়ার প্রস্তাব করা হয়। তবে নগদ অর্থ দেয়ার উদ্যোগে বৈষম্য নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। মধ্যবিত্ত নাগরিকরা যেখানে মাথাপিছু ১২ হাজার ডলার পাবেন ঠিক সেখানেই একজন দরিদ্র আমেরিকান পাবেন মাত্র ৬০০ ডলার।


জনপ্রিয় বিষয় সমূহ: