লোহাগাড়ায় চেতনানাশকে দু’পরিবারের ১০জন অক্রান্ত

লেখক:
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

অমিত কর্মকার, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) ঃচট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় অভিনব পন্থায় চেতনানাশক ব্যবহার করে
দূর্বৃত্তরা এক পরিবারের লুট করে সহায় সম্বল নিয়ে যাওয়ার সংবাদ
পাওয়া গেছে। দুর্বৃত্তরা চেতনানাশক ব্যবহারের ফলে আক্রান্ত
হয়েছেন দু’পরিবারের ৫শিশুসহ ১০জন। উপজেলার উত্তর আমিরাবাদ
এলাকায় (খালেকের দোকানের পশ্চিমে) ঘোনাপাড়ায় মোহাম্মদ
ইব্রাহিম ও নারায়ন মজুমদারের বসতঘরে এই ঘটনা ঘটেছে। তাদের
দু’পরিবারের ঘরে দুর্বৃত্তরা এঘটনা ঘটায় গত ১৩জুন রবিবার
দিনগত রাতে। গৃহকর্তা ইব্রাহিমের বসতঘর থেকে দুর্বৃত্তরা
নিয়ে গেছে নগদ ৬লাখ টাকা, ৫ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার ও ৩টি
মূল্যবান মোবাইল সেট। চেতনানাশকে আক্রান্তরা লোহাগাড়া
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন বলে জানা যায়।
লোহাগাড়া থানা পুলিশ সংবাদ পেয়ে গত ১৪জুন সোমবার
ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে ঘটনা কিভাবে ঘটেছে বা কারা
ঘটিয়েছে কোন কূল কিনারা পাওয়া যায়নি।
সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, দুর্বৃত্তরা কৌশলে মোহাম্মদ ইব্রাহিমের ঘরে
ঢুকে পড়ে। নিয়ে এপরিবারের সহায় সম্বল। মালামাল লুট করার সময়
পরিবারের কেউ টের পায়নি। কারণ সবাই ঘুমে ছিল অজ্ঞান অবস্থায়।
ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা চেতনানাশক ব্যবহারের ফলে পরিবারের
সবাই অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পরিবারের অজ্ঞান সদস্যদের স্থানীয় লোকদের
সাহায্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা
হয়। অক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন ওসমান (৩৫), তাসির (৭), তাসকিন
(৬), আমেনা (৩০), জন্নাতুল নাঈম (২২), ইলমা (৫), মরিয়ম (৪৫),
টকি বিশ্বাস (৪১), পূর্ণতা মজুমদার (১৬) ও দিব্য মজুমদার (১৫)।