র‍্যাব ব্যবস্থা নেয়ার পর পরীমনির বিরুদ্ধে মামলা : নাসির

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

ঢাকার সাভারে বোটক্লাবের ঘটনায় এখনই নায়িকা পরীমনির বিরুদ্ধে মামলা করছেন না ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন আহমেদ। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) দুপুরে  এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নাসির উদ্দিন নিজেই।

তিনি বলেন, বোটক্লাবের ঘটনায় আমার বিরুদ্ধে অপ্রচার চালিয়েছিল পরীমনি। আমাকে জেলে পর্যন্ত পাঠানো হয়েছে। আমি এ ঘটনার বিচার চেয়ে মামলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে আজই মামলাটি করছি না। আগে দেখি তার বিরুদ্ধে র‍্যাব কী ধরনের ব্যবস্থা নেয়। এরপর আমি মামলা করব।

গতকাল রাতে পরীমনির বিরুদ্ধে মামলা করার কথা জানান নাসির উদ্দিন নিজেই। রাজধানীর বিমানবন্দর থানায় তিনি এই মামলাটি করতে চেয়েছিলেন।

এদিন বিকেলে সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে পরীমনির বাসায় অভিযানে যায় র‍্যাব। পরে সন্ধ্যায় তাকে আটক করা হয়। যেসব অভিযোগ রয়েছে সে ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পরীমনিকে র‍্যাব সদরদফতরে নিয়ে যাওয়া হয়।

এরপর রাত সাড়ে ৮টায় বনানীতে চলচ্চিত্র প্রযোজক ও অভিনেতা নজরুল ইসলাম রাজের বাসায় অভিযানে যায় র‍্যাব। টানা দুই ঘণ্টার অভিযান শেষে রাত ১০টা ১৫ মিনিটের দিকে তাকে আটক করেন র‍্যাবের সদস্যরা।

অভিযানের একটি সূত্র জানায়, পরীমনির বাসার যাবতীয় আসবাবে থরে থরে বিদেশি মদ পাওয়া গেছে। বিদেশি ব্র্যান্ডের যত ধরনের মদ আছে প্রায় সবই সেখানে মিলেছে। ফ্রিজভর্তি ছিল নামি-দামি ব্র্যান্ডের মদ। এর পাশাপাশি এই নায়িকার বাসায় মিলেছে সর্বনাশা মাদক ইয়াবা, এলএসডি ও আইসও।

পরীমনি দীর্ঘদিন ধরে আলোচনায় রয়েছেন। কিছুদিন আগে ঢাকার সাভারের বোটক্লাবে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন অভিযোগ করে আলোচনায় আসেন তিনি। সে ঘটনায় কয়েকজন গ্রেফতারও হয়েছিলেন, তারা আবার জামিনও পেয়ে গেছেন। এর মধ্যেই আবার একাধিক ক্লাবে পরীমনির ভাঙচুরের অভিযোগ করেন সংশ্লিষ্টরা।

সম্প্রতি রাজধানী থেকে পিয়াসা ও মৌ নামে আরও দুই মডেল গ্রেফতার হয়েছেন। তাদের বাসায় বিপুল মাদক ও ইয়াবা পাওয়া গেছে।