ম্যাচ শুরু হতেই মেসি মেসি ধ্বনিতে মুখর বার্সার মাঠ

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

দিনদশেক আগে লিওনেল মেসি বার্সার সাবেক খেলয়াড় হয়ে গেছেন। তবে এ নিয়ে বার্সায় শোক পালনের সময় নেই। নতুন মৌসুম যে শুরু হয়ে যাচ্ছিল। তাইতো দলে এক নতুন শুরু ডাক দিয়েছিলেন কোচ রোনাল্ড কোম্যান। সে ডাকের সাড়া দিয়ে লা লিগায় নিজেদের প্রথম ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদকে ৪-২ গোলে হারিয়েছে বার্সেলোনা।

প্রায় সাড়ে সতের মাস পর দর্শকরা সুযোগ পেয়েছিলেন মাঠে আসার। ফিরেও যেন শূন্যতা পেয়ে বসেছিল তাদের। মেসিই যে নেই! সেই শূন্যতা ঘোচাতেই অনেকেই পরে এসেছিলেন মেসির শার্ট। ম্যাচের বয়স যখন দশ মিনিট, তখন মেসি মেসি মেসি রবে মুখর হলো বার্সার মাঠ।

এই দলে যে আর মেসি খেলছেন না মাঠের মাঠের পারফর্ম্যান্সে মনেই হয়নি। প্রতিপক্ষ গোলমুখে ৮টি শট নিতে পেরেছে বার্সেলোনা, মোট শট ছিল ১৩টি। যেখানে ১১টি শট করে মাত্র ৩টিই লক্ষ্যে রাখতে পেরেছিল সোসিয়েদাদ।

শুরু থেকেই প্রতিপক্ষকে চেপে ধরেছিল বার্সা। যার ফলস্রুতিতে গোলটা পায় ১৯ মিনিটে। মেমফিস ডিপাইয়ের দারুণ এক ফ্রি কিকে জেরার্ড পিকে দলকে এগিয়ে দেন। এই গোলটা অবশ্য এক মাইলফলকও ছুঁইয়ে দিয়েছে স্প্যানিশ ডিফেন্ডারকে। বার্সার জার্সিতে এটি তার ৫০তম গোল। ডিফেন্ডার হিসেবে দলটির দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন আছেন কোচ রোনাল্ড কোম্যান থেকে ৩৮ গোল পেছনে।

বিরতির ঠিক আগে ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ংয়ের ক্রসে মাথা ছুঁইয়ে বার্সাকে দুই গোলে এগিয়ে দেন মার্টিন ব্র্যাথওয়েট। বিরতির পরও সেই ব্র্যাথওয়েটের গোল। জর্দি আলবার ক্রস ঠেকালেও ডেনিশ এই ফরোয়ার্ডের চেষ্টা ঠেকাতে পারেনি সোসিয়েদাদ। তাতে ইতিহাসের পাতায় উঠে যান তিনিও, স্প্যানিশ লিগের ইতিহাসে কোনো ডেনিশ ফরোয়ার্ডই যে এর আগে জোড়া গোল করে দেখাতে পারেননি!

এতক্ষণ পর্যন্ত বার্সা সহজ জয় দেখলেও ৮২ আর ৮৫ মিনিটে দুই গোল হজম করে কিছুটা শঙ্কাতেই পড়ে যায়। তবে সার্জি রবার্তোর শেষ মুহূর্তের গোলে ৪-২ গোলের দারুণ এক জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।