মৃত্যুহারের ঝুঁকিতে থাকা ব্যক্তিরা টিকায় অগ্রাধিকার পাচ্ছেন

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন, মহামারির সংক্রমণের মাঝে যাদের মৃত্যুহার বেশি, টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে তাদের বেশি অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।

শনিবার (৭ আগস্ট) করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) এক হাজার শয্যার ফিল্ড হাসপাতালের উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, চীনের সাথে আমাদের দেড় কোটি ডোজ টিকার চুক্তি হয়েছে। এরই মধ্যে তারা টিকা পাঠানোও শুরু করেছে। আমরা চীন থেকে আরও ৬ কোটি ডোজ টিকার চুক্তি করব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের এই অনুমোদন দিয়েছেন।

মন্ত্রী জানান, এসব টিকার মধ্যে অক্টোবর ও নভেম্বর মাসেই দুই কোটি করে মোট ৪ কোটি ডোজ টিকা আসবে। এর আগেও আসবে, তবে কিছুটা কম করে।

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির ব্যাপারে জাহিদ মালেক বলেন, দেশে করোনা সংক্রমণ দিনদিন খারাপ হচ্ছে। হাসপাতালগুলোতে কোথাও আইসিইউ বেড খালি নেই। কোভিড চিকিৎসায় সারাদেশে ১৭ হাজার সাধারণ বেড রয়েছে। তবে সেগুলোর প্রায় সবগুলোই রোগীতে ভর্তি হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, হাসপাতালগুলোতে এখন করোনা চিকিৎসার পাশাপাশি ডেঙ্গু চিকিৎসাও করতে হচ্ছে। চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীরা অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। তবে সংক্রমণ কমানোর সময় এসেছে। হাসপাতালে আর বেড বাড়ানোর সুযোগ নেই।

বিএসএমএমইউর ফিল্ড হাসপাতাল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএসএমএমইউর ফিল্ড হাসপাতালে আপাতত ৩৫৭টি শয্যা নিয়ে যাত্রা শুরু হয়েছে। এরমধ্যে ৪০টি আইসিইউ, বাকিগুলোতে সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইন স্থাপন করা হয়েছে। আর হাসপাতালটিকে পর্যায়ক্রমে এক হাজার বেডে উন্নীত করা হবে বলেও জানান তিনি।