বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু প্রায় ৪৩ লাখ

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

মহামারি করোনা ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে সংক্রমিত হয়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। একই সঙ্গে বেড়েছে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ১০ হাজারেও বেশি লোক। একই সময়ে অতিমারি ভাইরাসটিতে নতুন করে শনাক্ত মানুষের সংখ্যাও প্রায় ৭ লাখ ছাড়িয়েছে।

শনিবার (৭ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডো মিটারস থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ১০ হাজার ১১৭ জন। ফলে বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪২ লাখ ৯০ হাজার ৪৪১ জনে পৌঁছেছে। অন্যদিকে বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ২০ কোটি ২৪ লাখ ৩ হাজার ১৬৩ জন।

গত এক দিনে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। অন্য দিকে দৈনিক মৃত্যুতে শীর্ষে রয়েছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্র ইন্দোনেশিয়া। আর দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২০ কোটি ১৬ লাখের ঘর। অন্য দিকে মৃতের সংখ্যাও ছাড়িয়েছে ৪২ লাখ ৭৯ হাজার।

তাছাড়া একই সময়ের মধ্যে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ছয় লাখ ৯৭ হাজার ৩৬৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ১৭ হাজার বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে মহামারির শুরু থেকে ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে ২০ কোটি ১৬ লাখ ৩৯ হাজার ৪২৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

গেল ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ১৭ হাজার ২৮৮ জন। প্রাণঘাতী ভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশটিতে এখন পর্যন্ত তিন কোটি ৬২ লাখ ৯৮ হাজার ৮৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ছয় লাখ ৩১ হাজার ৮৬০ জন।

অপর দিকে শেষ এক দিনে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ইন্দোনেশিয়ায়। নির্ধারিত এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক হাজার ৭৩৯ জন। আর নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫ হাজার ৭৬৪ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩৫ লাখ ৬৮ হাজার ৩৩১ জন। যার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে এক লাখ দুই হাজার ৩৭৫ জনের।

এ দিকে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গেল ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন এক হাজার ৮৬ জন। তাছাড়া নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪০ হাজার ৫৪ জন।

অন্য দিকে মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দুই কোটি ৬৬ হাজার ৫৮৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে পাঁচ লাখ ৬০ হাজার ৮০১ জনের।

এছাড়া করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গেল ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪৬৪ জন। আর নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৫ হাজার একজন।

ফলে দেশটিতে মোট আক্রান্ত তিন কোটি ১৮ লাখ ৫৫ হাজার ৭৮৩ জন। যার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে চার লাখ ২৬ হাজার ৭৮৫ জনের।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ৬২ লাখ ৩৩ হাজার ৮৭৬ জন ফ্রান্সে, রাশিয়াতে ৬৩ লাখ ৭৯ হাজার ৯০৪ জন, ৫৯ লাখ ৮২ হাজার ৫৮১ জন যুক্তরাজ্যে, ইউরোপের দেশ ইতালিতে ৪৩ লাখ ৭৭ হাজার ১৮৮ জন, মুসলিম রাষ্ট্র তুরস্কে ৫৮ লাখ ৪৬ হাজার ৭৮৪ জন, ৪৫ লাখ ৬৬ হাজার ৫৭১ জন স্পেনে, জার্মানিতে ৩৭ লাখ ৮৯ হাজার ৪৪১ জন এবং ২৯ লাখ এক হাজার ৯৪ জন মেক্সিকোতে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন।