বিজয়নগরে দুই বিয়াইর সংঘর্ষে কাজের ছেলে নিহত আটক ২

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১ বছর আগে

মুহাম্মদ মহসিন আলী বিজয়নগর ব্রাহ্মণবাড়িয়া :ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে দুই বিয়াইর সংঘর্ষে জিহাদ (৩২) নামের কাজের ছেলে নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ জুন) বিকেল ৩টায় ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জিহাদের মৃত্যু হয়। নিহত জিহাদ কাশিনগর এলাকার মালেক মিয়ার ছেলে। তাদের আদি বাড়ি সদর উপজেলার ধুবলা গ্রামে হলেও এখন স্থায়ী ভাবে বিজয়নগর উপজেলার কাশিমনগর এলাকায় বসবাস করছে। এ ঘটনায় মালু মিয়া (৮৪) এবং হানিফ মিয়া (৩০) নামের ২ জনকে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আটক করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় , উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের কাশিনগরের প্রভাবশালী মাদক ব্যবসায়ী ইব্রাহিম মিয়ার মেয়ে নিপা আক্তারকে বিয়ে করেন একই এলাকার মালু মিয়ার ছেলে সেলিম মিয়া। কয়েকদিন ধরে নিপার সঙ্গে তার স্বামীর অমিল চলছে। ১৪ জুন সোমবার নিপা তার স্বামী ও শাশুড়ির সাথে কথা কাটাকাটি হয়। স্বামী শাশুড়ির সাথে কথা কাটাকাটির বিষয়টি নিপা তার পিতাকে জানালে, লোকজন নিয়ে এক বিয়াই অন্য বিয়াইর বাড়িতে হামলা চালায়। ১৫ জুন মঙ্গলবার সকালে ইব্রাহিমের লোকজনকে স্থানীয় বাজারে পেয়ে মালু মিয়ার লোকজন আক্রমণ করেন।

মুহূর্তেই দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গ্রামের সড়কে উভয়পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় ইব্রাহিম মিয়ার বাড়ীর কাজের ছেলে জিহাদ ছুরির আঘাতে মারাত্বক আহত হয়। আহত অবস্থায় এলাকাবাসী জিহাদকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় জিহাদ মারা যায়।

এ ব্যাপরে বিজয়নগর থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক। ঘটনাস্থল থেকে ইব্রাহিম মিয়ার বিয়াই মালু মিয়া এবং হানিফ মিয়া নামের ২ জনকে আটক করা হয়েছে।