নওগাঁয় ঘরের টিনের ৮ স্থানের ফুটোদিয়ে ভেতরে পানি ঢোকায় বৃদ্ধের মানবেতর জীবন-যাপন

লেখক:
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ নওগাঁ জেলা শহর তথা নওগাঁ পৌরসভার ভবানীপুর (মধ্যে পাড়া) কসিমের মোড় সংলগ্ন নজরুল ইসলাম বাবু (৬৩) নামের এক বৃদ্ধ তার পরিবার নিয়ে চলমান বর্ষা মৌসুমে আকাশের বৃষ্টিতে মানবেতর জীবনযাপন করছেন।সরেজমিনে দেখাগেছে, বৃদ্ধের দুটি ঘড়ের উপরে টিন দিয়ে ছাউনি দেয়া। ছাউনির টিনগুলো পুরনো হওয়ায় কারনে জংধরে ছিদ্র হয়েছে। আকাশের বৃষ্টি এলেই ঘরে পানি পরে ৮ টি স্থান দিয়ে। এমনকি গত কয়েক দিন ধরে রাতে বৃষ্টি হওয়ার কারনে ঘুমহীন মানবেতরভাবে রাত্রী পার করছেন বৃদ্ধ সহ তার পরিবারের লোকজন। প্রতিবেশী আরমান আলী বলেন,এই বৃদ্ধ পরিবার অনেক সময় খেয়ে না খেয়ে আত্মীয় স্বজনদের সহযোগীতায় কোন রকমে চলছে। এখন করোনা কালীন সময়ে সকলেরই আর্থিক সংকট। নওগাঁ পৌর মেয়র নাজমুল হক সনি বলেন, আমি আপনার ( প্রতিবেদকের) মধ্যেমে বিষয়টি জানতে পারলাম। আমি অসহায় বৃদ্ধের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করবো।বৃদ্ধ নজরুল ইসলাম বাবু বলেন, আমি এক সময় মাদক ব্যবসার (গাঁজা) সাথে জরিত ছিলাম। অবৈধ ব্যবসায় সুখ নেই নানা হয়রানি মনে আতঙ্ক। মাদক ব্যবসার মত জঘন্য কাজ থেকে আমি গত প্রায় ৬ বছর আগেই ফিরে এসেছি। জেল জরিমানায় কেটেছে জিবনের অনেকটা মূল্যবান সময়। এখন আমি কষ্ট হলেও সৎ পথে চলার চেষ্টা করি অভাব অনটনে দিন কাটলেও মনে শান্তি আছে আমার। চলমান বর্ষা মৌসুমে রাতে বৃষ্টি এলে ঘরের টিন নষ্ট হওয়ায় ঘুমাতে পারিনা পানি পরে সারা ঘরে জমে থাকে, তারপরও মনের কষ্ট মনে রেখে মানবেতর জীবন যাপন করছি। সমাজের বিত্তবানরা সহযোগীতার হাত বাড়ালে সমস্যার সমাধান হবে বলে মনে করছেন প্রতিবেশীরা।