দেশের আইসিটি খাতের উন্নয়নে পাশে থাকতে চায় কানাডা

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১ মাস আগে

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথ অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে দেশের খ্যাতনামা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নলেজ শেয়ারিং প্রযুক্তি শিক্ষার বিকাশে কাজ করতে চায় কানাডা।

বুধবার (২৫ মে) বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত ড. লিলি রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এ আগ্রহের কথা জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ স্টার্টআপ কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদ ও কানাডা দূতাবাসের কাউন্সিলরসহ সংশ্লিষ্টরা।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘গত ১৩ বছরে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিভিন্ন সময়োপযোগী ও কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে দেশের আইসিটি খাত একটি শক্তিশালী ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়েছে। দেশে প্রায় ২০ লাখ তরুণ-তরুণী কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করছেন। বাংলাদেশ আইটি ও আইটিইএস খাতে ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার আয় করছে। অনলাইন শ্রমশক্তিতে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। দেশের প্রায় সাড়ে ৬ লাখ ফ্রিল্যান্সার আউটসোর্সিং খাত থেকে প্রায় ৭০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করছেন।’

তিনি জানান, ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে শ্রমনির্ভর অর্থনীতি থেকে জ্ঞাননির্ভর অর্থনীতির দিকে এগিয়ে নিতে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিগত ১৩ বছরে বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতের উন্নয়নের প্রশংসা করেন। রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘অল্প সময়ে বাংলাদেশের আইসিটি খাতসহ বিভিন্ন খাতের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে।’ আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তিসহ বিভিন্ন খাতে আরও এগিয়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের আইসিটি খাতের উন্নয়ন ও বিকাশে কানাডা পাশে থাকবে বলে জানান।