ইয়াবাকাণ্ডে সাতকানিয়ায় ৩ পুলিশ সদস্যসহ কারাগারে ৬

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় অভিযানে গিয়ে ইয়াবা ও টাকা রেখে দিয়ে মাদক কারবারিকে ছেড়ে দেয়ার ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্যসহ গ্রেফতার ছয়জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

কারাগারে যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন- শাহ মোহাম্মদ হাসান (২৭), আরাফাত নাজিম উদ্দীন (২৬) ও বিমল চাকমা (৪৬), আরাফাত (১৪), বেলাল (২৮) ও নেজাম উদ্দিন (২৭)।

তাদের মধ্যে শাহ মোহাম্মদ হাসান, আরাফাত নাজিম উদ্দীন ও বিমল চাকমা সাতকানিয়া থানার ঢেমশা তদন্ত কেন্দ্রের কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত।

সোমবার (৯ আগস্ট) চট্টগ্রাম সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক জিহান সানজিদা তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মঙ্গলবার সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, তদন্তে ওই পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। এরপর তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। পরে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ৬ আগস্ট সাতকানিয়া থানার ঢেমশা তদন্ত কেন্দ্রের তিন কনস্টেবল অভিযানে বের হয়ে দুই ইয়াবা কারবারিকে আটক করেন। পরবর্তীতে তাদের পকেটে থাকা ইয়াবা ও ইয়াবা বিক্রির টাকা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেন। বিষয়টি আরেক পুলিশ সদস্যের অভিযোগের মাধ্যমে অবগত হন সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন ও সাতকানিয়া সার্কেলের এএসপি জাকারিয়া রহমান জিকু। পরে তাদের নির্দেশে ঘটনাটির প্রাথমিক তদন্ত করা হয়।

তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে রোববার আটক করা অভিযুক্ত তিন পুলিশ সদস্যসহ মোট ছয়জনকে। পরে এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে ঢেমশা তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সোমবার সকালে ছয়জনকে আদালতে পাঠানো হলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠান।