ইরানের একমাত্র পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের একমাত্র পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ‘বুশেহের’ জরুরিভিত্তিতে বন্ধ করা হয়েছে। এটি ‘প্রযুক্তিগত রক্ষণাবেক্ষণ’ করার জন্য সাময়িকভাবে বন্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেল। খবর আল-জাজিরার।

রাষ্ট্রীয় বিদ্যৎ উৎপাদন কোম্পানির কর্মকর্তা গোলামালি রাখশানিমেহের বলেছেন, বুশেহের বিদ্যুৎকেন্দ্রটি শনিবার (১৯ জুন) থেকে বন্ধ করা হয় এবং আগামী তিন/চারদিন পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

তিনি আরও বলেন, এর ফলে বিদ্যুতের ঘাটতি দেখা দিতে পারে। তিনি এ বিষয়ে বিস্তারিত আর কিছু বলেননি। তবে এই প্রথম বুশেহের শহরের পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রটি জরুরিভিত্তিতে বন্ধ করা হলো।

রাশিয়ার সহায়তায় ২০১১ সালে এটি চালু হয়। পারমাণবিক কার্যক্রম প্রসারিত না করার ব্যবস্থা হিসাবে ইরানকে চুল্লির জ্বালানী রডগুলো রাশিয়ায় ফেরত পাঠাতে হবে।

গত মার্চে পারমাণবিক কর্মকর্তা মাহমুদ জাফারি বলেন, ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্র ইরানের ওপর যে ব্যাংকিং নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তার ফলে কেন্দ্রটির কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যেতে পারে। কারণ এর ফলে রাশিয়া থেকে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম আনা সম্ভব হচ্ছে না।

বুশেহেরের ইউরেনিয়াম রাশিয়ায় তৈরি, ইরানে নয়। এটি জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থার (আইএইএ) দ্বারা পর্যবেক্ষণ করা হয়। কেন্দ্রটি বন্ধ হওয়ার বিষয়ে আইএইএ থেকে এখনও কোনও বক্তব্য দেওয়া হয়নি।

ইরানের শাহের শাসনামলে পারস্য উপসাগরের উত্তর প্রান্তের উপকূলে বুশেহেরের নির্মাণের কাজ ১৯৭০ এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে শুরু হয়েছিল।

১৯৭৯ সালে ইসলামিক বিপ্লবের পর কেন্দ্রটি ইরান-ইরাক যুদ্ধের অন্যতম লক্ষ্যবস্তু হয়ে উঠেছিল। পরবর্তীকালে রাশিয়া এটির নির্মাণকাজ সম্পন্ন করে।