আবার একসঙ্গে মেসি-নেইমার : ‘এমএসএন’ এখন ‘এমএমএন’

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ে (পিএসজি) নাম লেখানোর মাধ্যমে পুরোনো বন্ধু নেইমার জুনিয়রের সঙ্গে খেলার সুযোগ পাচ্ছেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। এছাড়াও ক্লাবটিতে রয়েছেন বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা তরুণ প্রতিভা কাইলিয়ান এমবাপে।

সবমিলিয়ে পিএসজিতে এখন থেকে দেখা যাবে ভয়ানক ত্রয়ী মেসি-এমবাপে-নেইমারকে। সংক্ষেপে তাদের তিনজনের নামের আদ্যাক্ষর দিয়ে একে বলা হচ্ছে ‘এমএমএন’। যা আগে বার্সেলোনায় ছিল ‘এমএসএন’।

ফ্রান্সের ক্লাবটিতে আসার আগে বার্সেলোনায় একসঙ্গে খেলেছেন মেসি ও নেইমার। তাদের সঙ্গে আক্রমণভাগের তৃতীয় খেলোয়াড় ছিলেন লুইস সুয়ারেজ। এই বিধ্বংসী ত্রয়ীকে একসঙ্গে ডাকা হতো ‘এমএসএন’ নামে।

এখন পিএসজিতে এক হয়েছেন মেসি-নেইমার এবং আক্রমণভাগে তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে রয়েছেন এমবাপে। এ তিনজন মিলে গড়ে তুলবেন বিধ্বংসী এমএমএন ত্রয়ী- এমনটাই প্রত্যাশা ফুটবলপ্রেমীদের।

২০১৪ সালে লিভারপুল থেকে বার্সেলোনায় যোগ দেন উরুগুইয়ান তারকা লুইস সুয়ারেজ। এরপর ২০১৭ সালে নেইমার পিএসজিতে চলে যাওয়ার আগে তিন মৌসুম একসঙ্গে খেলেন তারা। যেখানে সবমিলিয়ে ৩৬৪ গোল ও ১৭৩ এসিস্ট করে ক্লাব ফুটবলের অন্যতম বিধ্বংসী এ ত্রয়ী।

দলীয় সাফল্যও কম ছিল না এমএসএন ত্রয়ীর। ২০১৫ সালে ট্রেবলসহ বার্সাকে দুইটি লা লিগা, তিনটি কোপা দেলরে, একটি স্প্যানিশ সুপার কাপ, একটি উয়েফা সুপার কাপ, একটি চ্যাম্পিয়নস লিগ ও একটি ক্লাব বিশ্বকাপ জেতান তারা।

মাত্র তিন মৌসুমে পাঁচশর বেশি গোল-এসিস্ট এবং নয়টি শিরোপা- এমএসএনের এই অবিশ্বাস্য কীর্তির পুনরাবৃত্তি করা সহজ হবে না পিএসজির এমএমএন ত্রয়ীর জন্য। তবে গত চার বছরে লিগ ওয়ানে ১০৯ ম্যাচে ৯১টি গোল করেছেন এমবাপে। তাই মেসি-নেইমারের সঙ্গে তার রসায়ন জমার ব্যাপারে আশাবাদী ভক্ত-সমর্থকরা।