আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য গ্রেফতার, লুণ্ঠিত গরু ও অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার

লেখক: তানিম টিভি
প্রকাশ: ১০ মাস আগে

নরসিংদী জেলা প্রতিনিধিঃ গতকাল বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শাহেদ আহমেদ ও পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মোহাম্মদ আবুল বাসার পিপিএম (বার) এর নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা শাখার এসআই জামিরুল ইসলাম সঙ্গীয় অফিসার এসআই আশরাফুল আলম, এসআই নজরুল ইসলাম, এসআই মোহাম্মদ তানভীর মোর্শেদ, কং/৭৭২ পারভেজ, কং/৫০০ মোসলেম উদ্দিন, কং/১১৭০ সাইমূল, কং/৮৮৪ নাসির মৃধা ডাকাত দলকে ধরতে অভিযান পরিচালনা করে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়।

নরসিংদী মডেল থানাধীন শলিধা নতুন বাসষ্ট্যান্ড মুক্তি চত্বর মোড়ের কাছে বাগানের ভিতর একদল ডাকাত ডাকাতির উদ্দেশ্যে মাহিন্দ্র গাড়ী সহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে অবস্থান করছে মর্মে সংবাদের ভিত্তিতে উক্ত অভিযান পরিচালনা করা হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে একটি মাহিন্দ্র গাড়ী সহ ১৫/১৬ জনের সশস্ত্র ডাকাত দল পালানোর সময় সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সের সহায়তায় ০৬ জন ডাকাতকে আটক করা হয় এবং ১০/১১ ডাকাত পালিয়ে যায়।

ধৃত ডাকাতদের জিজ্ঞাসাবাদে নিজেদের নাম ঠিকানা প্রকাশ করে। তারা হলেন ১। মোঃ আব্বাস আলী (৩০),পিতা- মোঃ সোহরাব আলী, মাতা- দূলালী বেগম, সাং- মইষা দক্ষিনপাড়া, থানা ও জেলা- টাঙ্গাইল, ২।মোঃ মামুন মিয়া (৩৫),পিতামৃত- বুইদা, মাতা-কমলা,সাং- নিরালা প্রত্যাশা ( নিরালা পুকুর পাড়ের পাশে) থানা- হরিণটানা,জেলা- খুলনা, ৩। মোঃ মঞ্জু মিয়া @ রুবেল মিয়া (৩২),পিতা- আব্দুল মালেক ড্রাইভার, মাতামৃত- রোকেয়া বেগম,সাং- গোরায় খামারপাড়া, (নয়া চেয়ারম্যানের বাড়ীর কাছে), থানা- মির্জাপুর,জেলা- টাঙ্গাইল, ৪। মোঃ ইউসুফ শেখ (৩০),পিতামৃত- মুর্শিদ শেখ,মাতা- মেহেরুন নেসা, সাং- ভান্ডারকোট, থানা- বটিয়াঘাটা,জেলা- খুলনা, এ/পি-সাং- নিরালা দিঘিরপাড়া,১নং রোডের মাথায় (পুন্নির বাড়ীর) থানা- খুলনা সদর, কেএমপি, খুলনা। উপরিউক্ত ৪ (চার) ডাকাত কলতাসূতী নয়াবাড়ী (জসিমের বাড়ীর ভাড়াটিয়া, থানা- আশুলিয়া,জেলা- ঢাকা)। ৫। মোঃ খোকন মিয়া (৩৪),পিতা- আব্দুল রহমান মিয়া,মাতা- শিরিনা আক্তার, সাং- বাসাইল ( আদিলাপাড়া ব্রীজের পাশে), থানা- বাসাইল,জেলা- টাঙ্গাইল, এ/পি সাং- কলতাসূতী নয়াবাড়ী (স্বপনের বাড়ীর ভাড়াটিয়া,থানা- আশুলিয়া,জেলা- ঢাকা), ৬। মোঃ আরিফুল ইসলাম (৪০),পিতা-বাবর আলী মোল্লা,মাতা- আয়েশা বেগম,সাং- কপালিয়া মোল্লাপাড়া, থানা- মনিরামপুর,জেলা- যোশর, এ/পি সাং- শ্রীপুর (ফিনিক্সের কোনায় হামিদ দেওয়ানের বাড়ীর ভাড়াটিয়া) থানা- আশুলিয়া,জেলা- ঢাকা।

ধৃত আসামী আব্বাস আলীর নিকট হতে একটি লোহার তৈরি ওয়ান শুটার গান ও একটি ছড়রা গুলির কার্তুজ, আসামী মামুন এর নিকট হতে একটি সুইচ গিয়ার, আসামী মঞ্জু মিয়ার নিকট হতে প্লাষ্টিকের হাতল সহ লোহার রড, আসামী ইউসুফের নিকট হতে একটি কোড়াবাড়ি হাতুরী, আসামী খোকনের নিকট হতে একটি প্লাষ্টিকের বাঁশি ও বাজার করার প্লাষ্টিকের সাদা ব্যাগে কালো কমলা রংয়ের ফুজি গ্রেন্ডার মেশিন, আসামী আরিফের নিকট হতে একটি মাহিন্দ্র গাড়ী এবং গাড়ীর পিছনের সিটে রক্ষিত একটি সাদা রংয়ের প্লাস্টিকের বস্তার ভিতরে একটি হেক্সো ব্লেড, একটি হুইল রেঞ্জ, একটি ক্যাবল কাটার, একটি টেষ্টার, সাদা রংয়ের প্লাষ্টিকের রশি, একটি স্লাই রেঞ্জ উদ্ধার করা হয়। ধৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় যে, বর্নিত অস্ত্র গুলি সহ ডাকাতি করার জন্য ঘটনাস্থলে সমবেত হয়েছিল। আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানায় যে, গত ০৯/০৮/২০২১ খ্রিঃ রাত্র অনুমান ০৭.৩০ ঘটিকা হতে ০৯.৩০ ঘটিকায় ঘোড়াশাল বাগদী এলাকায় একটি গরুর ফার্ম থেকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে সিকিউরিটি গার্ডদের হাত পা বেঁধে ০৯টি গরু ডাকাতি করে নিয়ে যায়। ডাকাতদের তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন সোনাকান্দা সাকিনস্থ ভাই ভাই ডেইরী ফার্ম হইতে ডাকাতি হওয়া ০৯টি গরুর মধ্যে ০৮টি গরু উদ্ধার করা হয়। এসময় ভাই ভাই ডেইরী ফার্ম এর মালিক জহিরুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়। উল্লেখ্য, গরু ডাকাতি সংক্রান্তে পলাশ থানায় মামলা রুজু হয়েছে।

উদ্ধারকৃত আলামতঃ (১) একটি লোহার তৈরি ওয়ান শুটার গান (২) একটি ছড়রা গুলির কার্তুজ (৩) বিভিন্ন রংয়ের ০৮টি গরু (৪) একটি সুইচ গিয়ার (৫) প্লাষ্টিকের হাতল সহ লোহার রড (৬) একটি কোড়াবাড়ি হাতুরী (৭) একটি প্লাষ্টিকের বাঁশি ও কালো-কমলা রংয়ের ফুজি গ্রেন্ডার মেশিন (৮) সাদা রংয়ের প্লাষ্টিকের রশি (৯) একটি হেক্সো ব্লেড (১০) একটি হুইল রেঞ্জ, (১১) একটি ক্যাবল কাটার, (১২) একটি টেষ্টার, (১৩) একটি মাহিন্দ্র গাড়ী।

এ সংক্রান্তে নরসিংদী মডেল থানায় ডাকাতি প্রস্তুতি ও অস্ত্র মামলা রুজু করা হয়েছে।